দেশ

চিন ছাড়া গতি নেই ভারতের, দাবি ভারতীয় বাণিজ্যিক সংগঠনের

লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারত চিনের সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে চিনের আগ্ৰাসনের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলে ভারত। চিন দ্রব্য বয়কটের ডাক দেয় ভারত, কিন্তু তা কতটা বাস্তবসম্মত? প্রশ্ন উঠছে এবার তা নিয়ে।ভারতে বানিজ্যের একটা বড়ো অংশ জুড়ে চিনা দ্রব্য, সেখানে কে নেই চিনা পণ্য কিনবেন আর কে কিনবেন না, তা নির্ধারণ করবে সাধারণ মানুষই।

ভারতের ব্যবসা বাণিজ্য চিনের ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল। ইতিমধ্যেই চিনের রফতানি ১৬.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ১৬.৯৫ মার্কিন ডলারে পৌঁছেছে। অন্যদিকে কমেছে আমদানির পরিমাণ, আমদানি ৬৮.২ থেকে ৭৩.৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার হয়েছে। অর্থাৎ একটি নির্দেশেই ভারতের বাজারে চিনা নির্ভরশীলতা কাটিয়ে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব নয়।

Federation of Indian Export Organisations প্রেসিডেন্ট এসকে সরফ জানিয়েছেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগ, আমদানির ওপর ভারতীয় বাজারের বহু পরিমাণ নির্ভরশীলতা আছে, তাই ভারতের মানুষ কোন দেশের পণ্য ব্যবহার করবেন তা মানুষের ওপরই ছেড়ে দেওয়া উচিত। বাণিজ্য সংগঠনের তরফে জানানো হয় এখনই স্বতন্ত্র ভাবে ভারতীয় বাণিজ্য চালানো সম্ভব নয় এবং একেবারেই বাস্তবসম্মত নয়। এই চিনা বর্জন বয়কটের ডাক এখনই সম্ভব নয়, আগামীদিনে ভারতের পক্ষেই তাদের বাণিজ্য এগিয়ে নিয়ে যাওয়া অসম্ভব হয়ে পড়তে পারে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close