রাজনীতি

সৌমেন মিত্রের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে ট্যুইট কংগ্ৰেস নেতা রাহুল গান্ধীর

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: ২৯ জুলাই, বুধবার গভীর রাতে শহরের এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। প্রয়াত সৌমেন মিত্রর ছেলে ট্যুইট করে তাঁর বাবার প্রয়াণের কথা জানান। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই রাজনৈতিক নেতৃত্বের শোকবার্তা আসতে থাকে। সোমেন মিত্রের প্রয়াণে শোকজ্ঞাপন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ট্যুইট করেন। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী শোকজ্ঞাপন করে ট্যুইটের মাধ্যমে বলেন ,’এই কঠিন সময়ে তার পরিবার এবং বন্ধুদের প্রতি আমার ভালোবাসা এবং সমবেদনা। আমরা তাঁকে সবসময় শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবো।’

প্রসঙ্গত, দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন সোমেন মিত্র। হৃদ রোগের কারণে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিচ্ছিলেন তার দলের প্রায় প্রত্যেকেই । মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও খোঁজ নিয়েছিলেন সৌমেন মিত্রের।বুধবার ডায়ালিসিসয়ের মাধ্যমে তার শরীরের অতিরিক্ত জল বের করে দেওয়া হয়। তারপরই তাঁর শারীরিক দূর্বলতা বাড়তে থাকে।

ইতিমধ্যেই সোমেন বাবুর চলে যাওয়া এক রাজনৈতিক মহলের নক্ষত্রপতন বলেও মন্তব্য করেন অনেকে। এটা একটা কালের অবসান বলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে অনেক শোকবার্তা। রাহুল গান্ধীর পাশাপাশি এদিন শোকবার্তা জানান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় টুইটের মাধ্যমে, বলেন ‘সাংবিধানিক ক্ষেত্রে তাঁর(সোমেন মিত্র) পরামর্শে বারংবার উপকৃত হয়েছেন তিনি। বাংলা তার অবদান চিরকাল মনে রাখবেন।’

ট্যুইট করে অধীর চৌধুরী বলেন, ‘সোমেন মিত্রের মৃত্যুতে শোকাহত লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরীও। তিনি বলেন, ‘সোমেন মিত্র আর নেই এটা ভাবতে পারছিনা। বাংলার একটা অধ্যায় সমাপ্ত হলো। সংগ্রাম করে, প্রতিকূলতার মোকাবিলা করে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আমার রাজনৈতিক অভিভাবক ছিলেন। আমাকে জনপ্রতিনিধি করার মূল কারিগর সোমেনদা কে হারিয়ে আমি দুঃখে কাতর ও বেদনাহত হলাম।’ তিনি শোকাহত বলে জানান এই লোকসভার কংগ্ৰেস দলনেতা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close