অফবিট

এক পা নিয়েই ১০৪ দিনে ১০৪টি ম্যারাথন! নজিরবিহীন রেকর্ড দৌড়বিদের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্কঃ এক কথায় অসাধ্য সাধন। যা বাকি দুনিয়ার কাছে প্রায় অসম্ভব ম্যারাথনের দুনিয়ায় তাই সম্ভব করে দেখালেন এক মহিলা। একটি পা না থাকার প্রতিকূলতাকে জয় করে রেকর্ড গড়লেন ম্যারাথনে। ১০৪ দিনে ১০৪ টি ম্যারাথনের মতো দৌড় প্রতিযোগিতায় নজির গড়লেন আরিজোনার জ্যাকি হান্ট ব্রুয়ের্সমা। একটা পা না থাকা অবস্থাতেই তাঁর এই অভাবনীয় সাফল্যের পিছনে রয়েছে তাঁর অনমনীয় সাহসিকতা।

ম্যারাথনের হিসেব অনুযায়ী একজন দৌড়বিদকে দৌড়তে হয় প্রায় ২৬.২ মাইল। একজন সুস্থ সবল মানুষের কাছেও এটা অনেক বড়ো চ্যালেঞ্জ। সেখানে ব্রুয়ের্সমা তাঁর একটি পা নিয়েই ১০০ দিনে ১০০ টি ম্যারাথন দৌড়েছেন। কাটা পায়ের জায়গায় রানিং ব্লেড ব্যবহার করেছিলেন তিনি।

এইবছর জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত চলেছিল দক্ষিণ আফ্রিকায় বড়ো হওয়া এই এন্ডিউরেন্স রানারের দৌড়। তিনি অবশ্য ‘রানিং’ শুরু করেন বছর ছয়েক আগে। শুরুতে পাঁচ কিলোমিটার দৌড়, হাফ ম্যারাথন, এবং পরে ম্যারাথন। ধীরে ধীরে ভালোবেসে ফেলছিলেন খেলাটিকে।

তাঁর এই গোটা জার্নিতে অসহ্য যন্ত্রণা সইতে হয়েছে তাঁকে। একসময় দৌড় থেকে বেরিয়ে আসার চিন্তাভাবনাও করেছিলেন। কিন্তু খেলার প্রতি তাঁর ভালোবাসাই তাঁকে ইতিহাসের পাতায় স্থান করে দিয়েছে। শারীরিক প্রতিবন্ধকতার সাথে ব্রুয়ের্সমার লেজুর হয়েছিল পরিবারের দায়িত্বও। নিজে একজন মা হওয়ায় খেলার কারণেই দূরত্ব বাড়ছিল সন্তানদের সাথে। ফলে তিনি প্রথমে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, ভেঙে ভেঙে দৌড়বেন ম্যারাথন। কিন্তু পরবর্তীতে অভিযোগ উঠলো তিনি ম্যারাথনে নিয়ম ভাঙছেন। দাঁতে দাঁত চেপে একদিনেই দুটো দৌড় শেষ করেন ব্রুয়ের্সমা।

ম্যারাথনে প্রাপ্য ২০০,০০০ ডলার টাকা পা-হারানো দৌড়বিদদের জন্য খরচ করবেন বলে ঠিক করেছেন তিনি। তবে সাফল্য পেলেও এটাই জীবনের শেষ ম্যারাথন নয়। আগামী বছরেই দুটি দৌড়ের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন তিনি। একটি ১০০ মাইল, অন্যটি প্রায় ২৫০ মাইল! নিজের জীবন থেকে অসম্ভব কথাটি মুছে দিয়ে সম্ভাবনার নতুন ইতিহাস রচনায় পথেই নিজের দৌড় চালিয়ে যেতে চান জ্যাকি হান্ট ব্রুয়ের্সমা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close