দেশ

“আত্মা এখনো বেরোয় নি”, রাতভর বরফের বাক্সে রেখে বৃদ্ধের মৃত্যুর প্রতীক্ষা করল পরিবার

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: বয়স হয়ে গেছে, পরিবারে তাঁর আর প্রয়োজন নেই। তাই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার ‘অপরাধে’ বরফের বাক্সে ঢুকিয়ে ৭৪ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের মৃত্যুর অপেক্ষা করছিল পরিবারের বাকি সদস্যরা। এমনই ভয়ঙ্কর অভিযোগ উঠেছে তামিলনাড়ুর সালেম জেলার এক পরিবারের বিরুদ্ধে।

 

জানা গেছে, বালাসুব্রামানিয়া কুমার নামের ৭৪ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধ কিছুকাল আগে শারীরিক অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তারপর সেখান থেকে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এরপর বাড়ি ফিরলে বাড়ির লোকেরা একটি বরফের বাক্স জোগাড় করে তার মধ্যে বৃদ্ধকে পুড়ে রাখেন বলে অভিযোগ। বৃদ্ধের ভাইয়ের বিরুদ্ধে সারারাত তাঁকে বাক্সের ভিতর রেখে দেওয়ার এই অভিযোগ উঠেছে। একটি বিশেষ সংস্থার কাছ থেকে ওই বরফের বাক্সটি জোগাড় করা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

 

ওই সংস্থার লোক বাক্সটি ফেরত নিতে এলে মৃতপ্রায় বৃদ্ধকে উদ্ধার করেন। বাক্সের ভিতরে জীবন্ত ব্যক্তিকে দেখে তৎক্ষণাৎ খবর পাঠিয়ে লোক জড়ো করেন তিনি।সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। যা দেখে শিউরে উঠেছে নেট দুনিয়া। ভিডিওতে দেখা যায় বরফের বাক্সের ভিতরে শ্বাস নেওয়ার জন্য ছটফট করছেন ওই বৃদ্ধ। তাঁর মৃত্যুর জন্যেই পরিবারের লোকেরা অপেক্ষা করছিল বলে মনে করা হচ্ছে।

 

মৃতদেহ বহনকারী গাড়ি যাঁরা ভাড়া দেন, সেই সংস্থার এক কর্মী এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে জানিয়েছেন, “ওই বৃদ্ধকে সারারাত ঠান্ডা বাক্সে ঢুকিয়ে রাখা হয়েছিল। পরিবারের লোকেরা আমায় বলে “এখনো আত্মা বেরোয় নি তাই আমরা অপেক্ষা করছি।” এই ঘটনা যারপরনাই বিস্মিত করেছে নেটিজেনদের।

 

এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে তাঁরা ওই বৃদ্ধের পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তাঁরা। জানা গেছে, বর্তমানে ওই বৃদ্ধ অবসরপ্রাপ্ত। তিনি স্টোর কিপার হিসেবে কাজ করতেন। তাঁর বাড়িতে তাঁর ভাই এবং এক ভিন্নভাবে সক্ষম ভাইঝি আছেন।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close