দেশ

রেহাই পেলেন না ৯০ বছর বয়সেও, গণধর্ষণের শিকার থুরথুরে বৃদ্ধা

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: পুরুষের বিকৃত যৌন লালসা যে কতটা ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে আরো একবার তার নিদর্শন পাওয়া গেল ভারতবর্ষে।লালসার হাত থেকে রেহাই পেলেন না ৯০ বছরের বৃদ্ধাও। ত্রিপুরার এক বৃদ্ধাকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল দুজন মধ্যবয়স্ক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। বিকৃত কাম ও লালসার সামনে শিশু থেকে বৃদ্ধ, কোনো নারী শরীরই যে আদতে সুরক্ষিত নয়, এই ঘটনা সেটাই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল আরো একবার।

জানা গেছে, উত্তর ত্রিপুরার কাঞ্চনপুর এলাকায় গত ২৪ অক্টোবর ঘটনাটি ঘটেছে। কিন্তু এতদিন তা সামনে আসে নি। সম্প্রতি ওই বৃদ্ধাকে তাঁর আত্মীয় স্বজন পুলিশ স্টেশনে নিয়ে গেলে ঘটনাটি জানাজানি হয়। পুলিশ সূত্রের খবর, অঞ্জন নামা নামক বছর ৩৫-এর এক ব্যক্তি এবং আরো একজন অপরিচিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে তাঁরা পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত অঞ্জন নামা বড়হল্দি গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

নির্যাতিতা বৃদ্ধার বয়ান অনুযায়ী, “অঞ্জন আর আরেকজন লোক মাঝরাতে আমার বাড়িতে হানা দেয়। ওরা আমাকে ধর্ষণ করে এবং প্রায় আধমরা অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। পরের দিন সকালে যখন আমার জ্ঞান ফেরে আমি আমার প্রতিবেশীকে ঘটনার কথা জানাই। কিন্তু অঞ্জন খুব প্রতাপশালী, আমরা ওর বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করতে সাহস পাই নি।”

পুলিশের তরফে জানা গেছে, ওই বৃদ্ধার মেডিকেল টেস্ট করানো হয়েছে এবং তাঁকে হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়েছে। কিন্তু এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায় নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। বলা বাহুল্য, অভিযুক্ত প্রভাবশালী হওয়ায় এক্ষেত্রে তদন্তের কোনো ব্যাঘাত ঘটছে কিনা সেই সন্দেহ একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক অতীতে ভারতবর্ষে ধর্ষণের ঘটনা অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। শিশু থেকে বৃদ্ধা, একের পর এক ধর্ষণ কিংবা গণধর্ষণের ঘটনায় শিউরে উঠেছে গোটা দেশ। সেই সঙ্গে ধর্ষণের মতো জঘন্য অপরাধের শাস্তির ক্ষেত্রে আইন শৃঙ্খলা কঠোর থেকে কঠোরতর করার দাবি উঠেছে চারিদিক থেকে। ত্রিপুরার ঘটনা আরো একবার সেই দাবিকেই জোরালো করে তুলে ধরল।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close