রাজ্যরাজনীতি

লড়ছেন ক্যান্সারের সঙ্গে, মুখ্যমন্ত্রীকে একবার সামনে থেকে দেখাই শেষ ইচ্ছে ৯২ বছরের বৃদ্ধার

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: সেই ২০১১ সালে ৩৪ বছরের বাম সাম্রাজ্য সরিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ ভারতের অন্যতম দাপুটে মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে প্রথম সারিতে জ্বলজ্বল করে তাঁর নাম। দু-বারের পর আগামী বছর তৃতীয় বারের জন্য পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় আসার জন্য দিন গুনছেন তাঁর সমর্থকরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ব সমর্থকদের মনে যে কতটা গভীর প্রভাব ফেলে, আরো একবার সামনে এল তারই নজির।

পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুরের বাসিন্দা শ্রীময়ী চট্টোপাধ্যায়। বয়স ৯২। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থক তিনি। শুধু তাই নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একবার মাত্র দেখা করাই এখান বৃদ্ধার জীবনের একমাত্র ইচ্ছা। জীবনের এই শেষ লগ্নে এসে ইচ্ছা পূরণের জন্য দিন গুনছেন শ্রীময়ী চট্টোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর অনুযায়ী শ্রীময়ী দেবী কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত। রোগের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই লড়াই চালাচ্ছেন তিনি। কিন্তু দুরারোগ্য এই ব্যধি প্রতি মুহূর্তেই তাঁর একটু একটু করে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে তাঁকে। শেষ বেলায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে একবার সামনে থেকে দেখলেই এখন সমস্ত আহ্লাদ মেটে বৃদ্ধার।

বস্তুত, সোমবার মেদিনীপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা আয়োজিত হয়েছে। প্রিয় নেত্রীর সঙ্গে একবার কি দেখা হবে? আশায় বুক বেঁধেছেন ৯২ বছরের শ্রীময়ী চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজে, নেতৃত্বে তিনি মুগ্ধ। একুশের মসনদেও যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দেখতে চান, তা বলাই বাহুল্য। “আমার ইচ্ছে যে আমি একবার মমতাকে কাছে পেয়ে তাঁকে আশীর্বাদ করি। বহুদিনের ইচ্ছা। আমাদের বাঙালি মেয়ে একজন, মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন, গর্বের বিষয় আমাদের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমি ভীষণ ভালোবাসি।”

প্রসঙ্গত, আগামী বছরের বিধানসভা নির্বাচনকে ঘিরে রাজনৈতিক টানাপোড়েনে এখন কার্যত তোলপাড় গোটা রাজ্য। বিরোধী বিজেপি সর্বশক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়েছে নির্বাচনী প্রচারে। দলবদলের কালো ছায়ায় বিপর্যস্ত শাসক শিবিরও।এমতাবস্থায় ৯২-এর বৃদ্ধার এই ভালোবাসা নিঃসন্দেহে অক্সিজেন জোগাবে মমতা ব্যানার্জির ভোট যুদ্ধে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close