fff
বিনোদন

“আমরা এখনও একটাই পরিবার”, প্রাক্তন স্ত্রীদের সঙ্গে বন্ধুত্ব রাখার সিক্রেট শেয়ার Aamir khan- র

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: বিচ্ছেদেই সব শেষ হয়ে যায় না, করণ জোহরের শোয়ে এসে আমির খান (Aamir khan) যা বললেন তার মানে এটাই। বলিউডের তিন খানের অন্যতম  Aamir khan (আমির খান) জানালেন স্ত্রীদের সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও বন্ধুত্ব শেষ হয়ে যায়নি। এখনও তাঁরা এক‌ই পরিবারের সদস্যদের মতোই বাঁচেন। নিয়মিত দেখা করে সময় কাটান বলেও জানিয়েছেন তিনি।

লাল সিং চাড্ডা (Laal Singh Chaddha) সিনেমার প্রমোশন উপলক্ষে ‘কফি উইথ করণ’ (Coffee With Karan) শোয়ে এসেছিলেন আমির খান (Aamir khan) ও করিনা কাপুর খান। সেখানেই শোয়ের সঞ্চালক তথা বলিউডের রোমান্স কিং করণ জোহরের প্রশ্নের উত্তরে ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ আমির জানান কিরণ রাওয়ের (Kiran Rao) সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও এখনও প্রতি সপ্তাহে তাঁরা একসঙ্গে দেখা করে সময় কাটান। ছেলে আজাদের অভিভাবক হিসেবে তাঁরা দুজনেই সব সময় সচেতন থাকেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য গতবছর দ্বিতীয় স্ত্রী কিরণ রাওয়ের সঙ্গে হঠাৎই বিবাহ বিচ্ছেদ হয় আমির খানের (Aamir khan)। যদিও সেই সময়ই কিরণ ও আমির ঘোষণা করেছিলেন তাঁদের বিয়ে ভেঙে গেলেও বন্ধু হিসেবে আজীবন থেকে যাবেন। ছেলে আজাদের অভিভাবক হিসেবে তাঁরা দুজনেই দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানান।

কফি উইথ করণের সেটে আমির খান (Aamir khan) জোরের সঙ্গে বলেন, তাঁর দুই স্ত্রীর সঙ্গেই কখনও তিক্ততা তৈরি হয়নি। তাঁর কথায়, “আমাদের বৈবাহিক সম্পর্ক শেষ হয়ে যেতে পারে, কিন্তু বন্ধুত্বের মধ্যে কখনও কঠিন পরিস্থিতি আসেনি। কিরণ বা রিনা কারোর সঙ্গেই কখনও উত্তেজিতভাবে আমি কথা বলিনি। ওরাও আমার সঙ্গে কখনও তেমন কোনও আচরণ করেনি। আমাদের পরস্পরের মধ্যে গভীর শ্রদ্ধা, সম্মান ও বন্ধুত্ব থেকে গিয়েছে। আমরা এখনও একটাই পরিবার।”

পরিচালক কিরণ রাওকে বিয়ে করার আগে রিনা দত্তকে বিয়ে করেছিলেন আমির খান (Aamir khan)। প্রথম পক্ষের স্ত্রীর সঙ্গে আমিরের দুই সন্তান আছে, ছেলে জুনেইদ খান ও মেয়ে ইরা খান। ঘটনা হল কিরণ রাওকে বিয়ে করার পরও মাঝেমধ্যেই জুনেইদ এবং ইরার সঙ্গে আমিরকে সময় কাটাতে দেখা গিয়েছে। এমনকি ইরার সঙ্গে কিরণেরও ছবি মাঝেমধ্যে প্রকাশ্যে উঠে আসত। শোনা যায় আমিরের প্রথম পক্ষের স্ত্রী রিনার সঙ্গে কিরণের যথেষ্ট ভালো বন্ধুত্ব ছিল।

কেন রিনা দত্ত বা কিরণের সঙ্গে তাঁর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে সে নিয়ে আমির খান (Aamir khan) কিছু বলেননি। তবে দ্বিতীয়বার আমিরের বিবাহ বিচ্ছেদের পর তাঁর সঙ্গে অন্য বেশ কয়েকজন অভিনেত্রীর নাম জড়িয়ে পড়ে। তবে এই নিয়ে ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ নিজে কখনও কোন মন্তব্য করেননি। তবে কফি উইথ করণের সেটে আমির খান যা বলেছেন তাতে একটা বিষয় পরিষ্কার, আগামী দিনে তিনি আবার নতুন কোন‌ও সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ুন বা নাই পড়ুন, প্রাক্তন স্ত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ থেকেই যাবে।

উল্লেখ্য লাল সিং চাড্ডার অন্যতম প্রযোজক হলেন কিরণ রাও। ফলে আমির খানের (Aamir khan) দাবি যে কতটা সত্যি তা এই সিদ্ধান্ত থেকেই পরিষ্কার। কারণ বিবাহ বিচ্ছেদ সত্বেও প্রযোজক হিসেবে আমিরের পাশ থেকে সরে যাননি কিরণ।

এদিকে, লাল সিং চাডার নায়িকা হিসেবে আমির খানের (Aamir khan) সঙ্গে কফি উইথ করণের সেটে এসে সঞ্চালকের অস্বস্তিকর প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় করিনা কাপুর খানকে। করণ জোহর বলিউডের ‘বেবো’-কে প্রশ্ন করেন, “দুটো সন্তান হওয়ার পর সেক্সের অভিজ্ঞতা কেমন?” এই প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দেওয়ার বদলে পাল্টা সঞ্চালককেই প্রশ্ন করে বসেন করিনা। বলেন, “ইয়াস ও রোহী, দুই যমজ সন্তানের বাবা হিসেবে তুমি এর উত্তর ভালই জানবে।” তখন করণ পাল্টা বলেন, “আমার মা দেখে অস্বস্তিতে পড়বেন এমন কোনও কিছু আমার সম্বন্ধে এই শোতে আমি বলব না। সঙ্গে সঙ্গে করিনার পাশে দাঁড়িয়ে আমির খান (Aamir khan) করণকে প্রশ্ন করেন, “অন্যের সেক্স লাইফ নিয়ে প্রশ্ন করলে তোমার মা অস্বস্তিতে পড়বে না?” এরপরই তিনজনে হাসিতে গড়িয়ে পড়েন।

করণ জোহরের অন্য একটি প্রশ্নের উত্তরে আমির খান (Aamir khan) স্পষ্ট জানান, যতই ব্যস্ততা থাকুক তিনি তাঁর সন্তান ও প্রাক্তন স্ত্রীদের জন্য ঠিক সময় বের করে নেন। নির্দিষ্ট সময় অন্তর তাঁদের সঙ্গে খাওয়া-দাওয়া, গল্প-আড্ডা দেন। এটাই তাঁর কাছে কোয়ালিটি সময় কাটানো বলেও জানান।

এই শোয়ে লাল সিং চাড্ডা করার জন্য কীভাবে আর্মি ট্রেনিং নিয়ে নিজেকে গড়ে তুলেছিলেন সেই কথা সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেন আমির খান (Aamir khan)। ঘটনা হল ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ বলে পরিচিত আমির খান যে কোনও চরিত্র হয়ে ওঠার জন্য কখনোই চেষ্টায় বিন্দুমাত্র ত্রুটি রাখেন না। ফলে বারবার নিজের চরিত্র ভাঙা-গড়া করেছেন। প্রয়োজনে ওজন ঝরিয়ে ৫০ কেজির কাছেও নিয়ে এসেছেন, আবার পর মুহূর্তে চরিত্রের প্রয়োজনেই নিজের ওজনকে ৯০ কেজিতে তুলে নিয়ে গিয়েছেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট। লাল সিং চাড্ডাতেও তেমনি কিছু দেখা যাবে বলে চলচ্চিত্র প্রেমীদের আশা।

তবে মাঝে বহুদিন আমির খানের (Aamir khan) তেমন কোনও হিট সিনেমা না থাকায় লাল সিং চাড্ডাকে ঘিরে আশা দেখতে শুরু করেছে আমির ভক্তরা। আগামী ১১ আগস্ট দেশজুড়ে মুক্তি পাচ্ছে লাল সিং চাড্ডা। এটি হলিউড সিনেমা ‘ফরেস্ট গাম্প’-এর অনুকরণে নির্মিত। ১৯৯৪ সালে রিলিজ হয় ফরেস্ট গাম্প। হলিউডের ইতিহাসে সর্বোচ্চ হিট হওয়া সিনেমাগুলোর অন্যতম একটা। তাতে অভিনয় করেছিলেন সুপারস্টার  টম হ্যাঙ্কস। এই সিনেমাটি অস্কারও জিতেছিল। সব মিলিয়ে পদে পদে তুলনার সম্মুখীন হবে আমির-করিনার লাল সিং চাড্ডা। সেই সঙ্গে টম হ্যাঙ্কসের সঙ্গে আমির খানের একটা তুলনা‌ও চলে আসছে। এই বিপুল প্রত্যাশার চাপ সামলে আমির খান অনুরাগীদের মন জয় করতে পারেন কী না সেটাই এখন দেখার। লাল সিং চাড্ডা পরিচালনা করেছেন অদ্বৈত চন্দন। যৌথভাবে বিশাল বাজেটের এই সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন আমির খান ও তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী Kiran Rao (কিরণ রাও)।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please Disable your ADBlocker!