দেশ

ফের উত্তপ্ত কাশ্মীর! জঙ্গি হামলায় খুন বিজেপির পঞ্চায়েত প্রধান

মহানগরবার্তা ওয়েব ডেস্ক : বহুদিন ধরেই জম্মু কাশ্মীরে জঙ্গিদের নাশকতামূলক কাজ ক্রমবর্ধমান। তবে এবার তাদের নিশানায় রয়েছে বিজেপি নেতা থেকে শুরু করে গ্রামপ্রধানরাও। বৃহস্পতিবার জঙ্গি হামলায় নিহত হয়েছেন বিজেপি দলের গ্রাম প্রধান সাজ্জাদ আহমেদ। এদিন দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগ্রাম জেলায় জঙ্গিদের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হলেন তিনি।

পুলিশ সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, ঘটনাটি কুলগাম জেলার কাজিগুন্দ এলাকার। বৃহস্পতিবার সকালে সাজ্জাদ আহমেদের বাড়িতে হামলা চালায় এক জঙ্গিদল।সেই সময় বাড়িতে ছিলেন না কুলগাম জেলার বিজেপির সহ সভাপতি সাজ্জাদ। বাড়ির বাইরে হত্যা করা হয় তাকে। হত্যা করার সাথে সাথেই সেখান থেকে চম্পট দেয় জঙ্গিরা। ঘটনাটি জানাজানি হতেই স্থানীয়রা তৎক্ষণাৎ তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালের তরফ থেকে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

এই নিয়ে গত তিনদিনে দুজন বিজেপি গ্রামপ্রধানের উপর হামলা চালালো জঙ্গিরা। শুধু তাই নয়, মঙ্গলবার কুলগাম জেলাতেই জঙ্গিদের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছিলেন বিজেপির অপর এক গ্রাম প্রধান আরখান। এখনো পর্যন্ত হাসপাতালে শয্যাশায়ী তিনি।

এভাবে পরপর দু-বার জঙ্গি আক্রমণের ফলে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে কুলগাম এলাকায়। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় ওই এলাকা জুড়ে বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।এবার জঙ্গিদের নিশানায় রয়েছে বিজেপির নেতা এবং গ্রাম প্রধানরা। ঘটনার জেরে এতটাই ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে যে স্থানীয় বিজেপি নেতা নেত্রীরা তাদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। মোতায়েন করা বিশাল পুলিশ বাহিনী দিন-রাত টহল দিচ্ছে এলাকাজুড়ে। তবে ওই অঞ্চলের কোন স্থানে জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

তবে এই ঘটনা নতুন নয় ।এর আগেও জুনমাসে অনন্তনাগ জেলায় জঙ্গিদের হাতে খুন হয়েছিলেন কংগ্রেসের গ্রাম প্রধান অজয় কুমার পন্ডিত। অতএব দেখা যাচ্ছে যে গত কয়েক মাসে এই নিয়ে জঙ্গি হামলায় দুজন গ্রাম প্রধান নিহত হয়েছেন এবং একজন গুরুতর জখম হয়েছেন। তাছাড়াও গত ৮ ই জুলাই জম্মু-কাশ্মীরে বন্দিপুর জেলার বিজেপি নেতা শেখ ওয়াসিম বারি সহ তার বাবা ও ভাইকে গুলি করে নিহত করেছিল জঙ্গিরা। সেই সময় তাদের বাড়ির নিচে দোকানে বসে ছিলেন তার বাবা ও তার ভাই।

দোকানের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে বাইকে করে এসে এক জঙ্গী তাদের মাথায় গুলি করে দিয়ে সেখান থেকে পলাতক হয়। এই বিষয়ে উল্লেখ্য, স্থানীয় থানা থেকে মাত্র দশ মিটার দূরে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল এই তিনজনকে।এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওয়াসিমের পরিবারের সুরক্ষার দায়িত্বে থাকা ১০ জন পুলিশকর্মীকে পুলিশ দপ্তর থেকে সাসপেন্ড করা হলেও সেই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোনো সুরাহা হয়নি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত জম্মু কাশ্মীরে জারি রয়েছে এই জঙ্গি হামলা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close