গ্রিন রুম

ফিনিক্স পাখি ফিরবেই! আরও জটিল পরিস্থিতিতেও প্রার্থনা নেটদুনিয়ার

ওই মেয়েটা ওঠ! মানুষের দিকে তাকা….অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মার শারীরিক পরিস্থিতি চিন্তা বাড়ানোর মধ্যেই ফের প্রার্থনায় মজেছে নেটদুনিয়া। তাঁর সুস্থতার কামনায় সকলেই।

সূত্রের খবর, ফের শারীরিক অবস্থা খারাপ হয়েছে ২৩ বছরের এই অভিনেত্রীর। আর এই জল্পনার মধ্যেই তাঁর ভালোবাসার বন্ধু আর এক জনপ্রিয় অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরি তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে লেখেন, প্রার্থনা করুন। একথা লিখতে হবে ভাবিনি। অমানুষিক লড়াই করছে ও! সব্যসাচীর এই পোস্টের পরেই শুরু হয় নয়া জল্পনা। তাহলে কি ফের খারাপের দিকেই যাচ্ছেন অভিনেত্রী!

ঠিক কি হয়েছিল ঐন্দ্রিলার? গত ১ নভেম্ভর শারীরিক অবস্থা হঠাৎ খারাপ হয় অভিনেত্রীর। জ্ঞান হারান তিনি। ভর্তি করানো হয় হাওড়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে। হেমার্জিক ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন তিনি। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করাহায় রক্তক্ষরণ ঠেকাতে। কিন্তু খুব একটা কাজ হয়নি। অবস্থার অবনতি হলে ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয় তাঁকে। অবশেষে নভেম্বরের ৭ তারিখ আশার কথা শোনান সব্যসাচী।তিনি জানান, ভেন্টিলেশনে আর নেই ঐন্দ্রিলা। কিন্তু এরপরেই সংক্রমণ বাড়তে থাকে অভিনেত্রীর। ফের ১৪ নভেম্বর, পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়েছে বলেই জানা গিয়েছে।

ঐন্দ্রিলা মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের মেয়ে। সেখানেই তাঁর বেড়ে ওঠা। বাবা উত্তম শর্মা চিকিৎসক। দিদি চিকিৎসক। মা শিখা শর্মা নার্সিং হোস্টেলের ওয়ার্ডেন। ছোট থেকে মেধাবী কন্যা ডাক্তার নয়, হতে চেয়েছেন শিল্পী।

২০১৫ সাল। সুখের সংসারে নামল বিপদ। ঐন্দ্রিলা মাত্র ১৫ বছর বয়সেই আক্রান্ত হলেন মারণ রোগ ক্যান্সারে। চলল নতুন যুদ্ধ। প্রায় দুই বছরের চেষ্টায় জিতলেন তিনি।

এরপর ২০১৭ সালেই স্বপ্ন পূরণ। কলকাতায় পা রাখলেন ঐন্দ্রিলা। শুরু করলেন অভিনয়। ঝুমুর ধারাবাহিকে অভিনয় দিয়ে শুরু কাজ। পরিচয় হল সব্যসাচীর সঙ্গেও। এরপর একাধিক ধারাবাহিকে কাজ।

ফের বিপদের হাতছানি। ২০২০ সালের শেষে ফের ক্যান্সারে আক্রান্ত হলেন ঐন্দ্রিলা। প্রেমিক সব্যসাচীর ভালোবাসার মধ্যেই চিকিৎসা চলল তাঁর। ফের জিতলেন।

আবার! ক্যান্সার নয়, এক অন্য বিপদের মুখে মেয়েটি। ক্রমশ খারাপ পরিস্থিতির মধ্যেই প্রার্থনা তিনি ফিরবেনই! কিন্তু…

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close