মহানগর

গায়ের রং কালো! বিনা চিকিৎসায় প্রাণ গেল আমেরিকার করোনা আক্রান্ত চিকিৎসকের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক:সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে নিয়ে এখন সরগরম মার্কিন মুলুকের রাজনীতি। কিন্তু প্রেসিডেন্ট পদের রদবদল কতটা প্রভাব ফেলতে পারবে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের এতদিনকার কলঙ্কে? জো বাইডেন কি পারবেন আমেরিকার কৃষ্ণাঙ্গ মানুষদের অধিকার সুনিশ্চিত করতে? এ প্রশ্নের উত্তর কিন্তু মেলে নি এখনও।

কৃষ্ণাঙ্গদের অধিকারের দাবিতে মার্কিন মুলুকে এখনও জারি রয়েছে আন্দোলন। তবে তার মাঝেই বারবার সামনে আসছে মার্কিন পুলিশের কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার ঘটনা। আজ সকালেই গুলি করে এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে সে দেশের পুলিশের বিরুদ্ধে। তার রেশ কাটতে না কাটতেই আরো একবার সামনে এল কৃষ্ণাঙ্গ অবহেলার ঘটনা।

জানা গেছে, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের এক করোনা আক্রান্ত কৃষ্ণাঙ্গ চিকিৎসক কার্যত বিনা চিকিৎসায় প্রাণ হারিয়েছেন। মৃত্যুর আগে তিনি দাবি করেছেন, গায়ের রং কালো হওয়ার কারণেই ন্যূনতম চিকিৎসা পাচ্ছেন না তিনি। তাঁর মৃত্যুর আগে করা ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই নতুন করে তৈরি হয়েছে বিতর্ক।

বস্তুত, আমেরিকার ইন্ডিয়ানা প্রদেশের ওই কৃষ্ণাঙ্গ চিকিৎসকের নাম সুসান মুর। গত ২০ ডিসেম্বর করোনা আক্রান্ত এই চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর আগেই তিনি ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটি বানিয়েছিলেন বলে জানা গেছে সূত্রের খবরে। মার্কিন মুলুকে বর্ণবিদ্বেষ যে কোন পর্যায়ে পৌঁছে গেছে, এই ঘটনা আরো একবার প্রমাণ করেছে সে কথাই।

৫২ বছর বয়সী সুসান মুরের ওই ভিডিও সাড়া ফেলেছে নেট নাগরিকদের মাঝে। ভিডিওতে তিনি জানিয়েছেন, শ্বেতাঙ্গ চিকিৎসকরা তাঁর চিকিৎসা করছেন না। তাঁকে চিকিৎসা পাওয়ার জন্য রীতিমতো ভিক্ষা করতে হচ্ছে। শুধু তাই নয়, নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হওয়ায় একসময় কেঁদেও ফেলেছিলেন তিনি, কিন্তু তবু কোনো শ্বেতাঙ্গ ডাক্তার তাঁর চিকিৎসায় এগিয়ে আসেন নি।

সুসান মুরের ছেলে জানিয়েছেন তাঁর মা পেশায় একজন চিকিৎসক। গত কয়েকদিন ধরে তিনি হাসপাতালের করোনা বিভাগে ডিউটি করেছিলেন। গত ২৯ নভেম্বর তাঁর করোনা ধরা পড়ে। এরপর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। কিন্তু সুসান চিকিৎসক হওয়া সত্ত্বেও কোনো চিকিৎসা পান নি, এমনটাই অভিযোগ করেছেন সুসান মুরের ছেলে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close