মহানগর

‘বিজেপি শাসনে উন্নয়নের জোয়ার দেখেছে উত্তর পূর্ব ভারত’, মনিপুর থেকে বার্তা অমিত শাহের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: কিছুদিন আগেই পশ্চিমবঙ্গ সফরে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রাজ্যে তাঁর সফরকে ঘিরে যে রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের সাক্ষী থেকে মানুষ, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তার তাৎপর্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বাংলা সফর সেরে এবার উত্তর পূর্ব ভারতে সফর করছেন অমিত শাহ।

এদিন মনিপুরে ভারতীয় জনতা পার্টির একটি সভা থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানান বিজেপি শাসনে উন্নয়নের জোয়ার এসেছে উত্তর পূর্ব ভারতে। উন্নয়নই মোদি সরকারের একমাত্র লক্ষ্য, বলেন তিনি। শুধু তাই নয়, এর আগে উত্তর পূর্ব ভারতে যে একেবারেই উন্নয়নের কোনো চেষ্টা করা হয় নি সে কথাও জানিয়েছেন তিনি। মোদি সরকারই উন্নয়নের নতুন ইতিহাস লিখছেন ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলে, দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের।

এদিন মনিপুরের হাপ্তা কাংজেইবুং নামক অঞ্চলে একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন অমিত শাহ। সেই উপলক্ষ্যে আয়োজিত সভা থেকে তিনি বলেন, “উত্তর পূর্ব ভারত আগে বিচ্ছেদ আর অরাজকতার জন্য পরিচিত ছিল। কিন্তু গত ৬ বছরে এখানকার প্রায় সমস্ত সশস্ত্র গোষ্ঠী একের পর এক তাঁদের অস্ত্র ত্যাগ করেছে। অরাজকতা দূর হয়েছে।” তিনি আরো বলেন, “আগে রোজকার অবরোধের জন্য মনিপুরের জীবনযাত্রা ব্যাহত হত। কিন্তু গত ৩ বছরে মনিপুরে আমরা কোনো ধর্মঘট দেখি নি। এর জন্য আমি মনিপুরের মুখ্যমন্ত্রী বীরেন সিংকে কৃতিত্ব দিতে চাই। উনি মনিপুরকে একটি সম্পূর্ণ নতুন পরিচয় দিয়েছেন।”

উত্তর পূর্ব ভারতের সফরে গিয়ে আসামের বিখ্যাত কামাক্ষা মন্দিরও দর্শন করেন অমিত শাহ। মনিপুরের সভায় তিনি বলেন, “বাকি সমস্ত রাজ্য ইনার লাইন পারমিট (Inner Line Permit Or ILP) পাচ্ছে কিন্তু মনিপুর তা পাচ্ছে না, এটা রাজ্যের বাসিন্দাদের প্রতি অন্যায়। মোদিজি একথা উপলব্ধি করেছিলেন এবং তিনি সেই অনুযায়ী ব্যবস্থাও গ্রহণ করেছেন। গত বছর ১১ ডিসেম্বর যখন মনিপুর ILP পায়, আমাদের খুব আনন্দ হয়েছিল।”

এদিন মনিপুর এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় একগুচ্ছ নতুন প্রকল্পের সূচনা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ৩২৫ কোটি টাকার চুরাচান্দ মেডিক্যাল কলেজ, ১২৮ কোটি টাকার আইআইটি সহ আরো নানা বিষয় এর অন্তর্ভুক্ত ছিল। উত্তর পূর্ব ভারতে ৩ দিনের সফরে গিয়েছেন অমিত শাহ।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close