রাজ্যখবর

জেল হেফাজতের শেষ পর্যায়ে,আদালতে যাওয়ার আগে অনুব্রত আবারও জানায় শরীর ভালো নেই তার

মহাগর বার্তা ডেস্ক : আজ গরুপাচার কাণ্ডে অনুব্রত মণ্ডলের জেল হেফাজতের মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। আজ আবার তাঁকে আসানসোলের বিশেষ সিবিআই আদালতে তোলা হল। আজ সাড়ে এগারোটার সময় আসানসোল সংশোধনাগার থেকে বের করে আনা হয় অনুব্রত মণ্ডলকে। তোলা হয় গাড়িতে। এবার জেল, নাকি জামিন? উঠছে প্রশ্ন।

জেল থেকে যখন আদালতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল অনুব্রত মণ্ডলকে সে সময়ে সাংবাদিকরা তাঁকে প্রশ্ন করেছিলেন যে, তাঁর শরীর কেমন আছে? এই প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘শরীর ভালো নেই।’

সূত্রের খবর, অনুব্রত মণ্ডলের শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে শর্তসাপেক্ষে জামিনের আবেদন করতে পারেন তাঁর আইনজীবীরা। অন্যদিকে অনুব্রত মণ্ডল প্রভাবশালী, এই যুক্তি দেখিয়ে তাঁর জামিনের বিরোধিতা করতে পারেন সিবিআইয়ের আইনজীবীরা।

এদিকে, গতকাল সিবিআই জেরার সম্মুখীন হয়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। তাঁকে ও তাঁর প্রাক্তন দেহরক্ষী সায়গল হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। ২০ মিনিট ধরে সায়গল হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ৫০ মিনিট ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় অনুব্রত মণ্ডলকে। তাঁকে ২০ টি প্রশ্ন করা হয়েছিল। জানা যায়, কিছু প্রশ্নের সাবধানী ও সংক্ষিপ্ত উত্তর দিয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল।

এর আগে ৬ দিন জেল হেফাজতের মাথায় অনুব্রতকে সংশোধনাগারে জেরা করা হয়েছিল। তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগ উঠেছিল অনুব্রত ও তার দেহরক্ষীর বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার আসানসোল বিশেষ সংশোধনাগারে সিবিআইয়ের তদন্তকারী অফিসার ঢোকেন বিকেল ৪টে ৪০মিনিট নাগাদ। দেড় ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর বেরিয়ে আসেন তিনি। বেরিয়ে এসে তিনি কিছু না বললেও সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে প্রথমে সায়গল হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে অনুব্রত মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close