দেশ

গোরু চুরি করে পাঠাতেন কষাইখানায়, প্রাক্তন নেতার কীর্তিতে মুখ পুড়ল বজরং দলের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: ভারতীয় রাজনীতিতে সাম্প্রতিক সময়ে যে গোরুর তাৎপর্য বিশেষ ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে, তা বলাই বাহুল্য। গোরুকে ধর্মীয় পরিপ্রেক্ষিতে রেখে তাতে রাজনৈতিক মাত্রা যোগ করতে দেখা গেছে বারবার। এহেন পরিস্থিতিতেই এবার গোরু পাচারের সঙ্গে নাম জড়াল বজরং দলের এক প্রাক্তন নেতার, যা নিয়ে ইতিমধ্যেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজনৈতিক মহল।

সূত্রের খবরে জানা গেছে, বজরং দলের ওই অভিযুক্ত প্রাক্তন নেতার নাম অনিল প্রভু। গোরু চুরি করে তাদের পাচারের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। এদিন তাঁকে গ্রেফতার করেছে কর্ণাটক পুলিশ। জানা গেছে তিনি কর্ণাটকের কারকালা জেলার বজরং দলের প্রেসিডেন্ট ছিলেন।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই গোরু পাচারের মামলায় এর আগেই গ্রেফতার করা হয়েছিল মহম্মদ ইয়াসিন নামের এক ব্যক্তিকে। তাঁকে জেরা করেই পুলিশ জানতে পেরেছে বজরং দলের নেতা অনিল প্রভুও এই কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। মহম্মদ ইয়াসিন এবং অনিল প্রভু, দুজনের বিরুদ্ধেই রাস্তা থেকে গোরু চুরি করে তাদের কষাইখানায় পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ জানিয়েছে, এই কাজের জন্য তাঁরা কষাইখানার তরফ থেকে টাকা পেতেন।

এ বিষয়ে বজরং দলের তরফ থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে যে তাঁদের সঙ্গে অনিল প্রভুর বর্তমানে আর কোনো সম্পর্ক নেই। তাঁরা এই ঘটনার সঙ্গে কোনোভাবেই যুক্ত নয়।

উল্লেখ্য, বিজেপি শাসিত কর্ণাটকে চলতি বছরেই গোহত্যা বিরোধী আইনের প্রস্তাব আনা হয়েছিল।তবে ‘Karnataka Prevention of slaughter and preservation of cattle bill 2020’ নামের এই প্রস্তাব বিলটি এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত হয় নি। তবে হিন্দুত্ববাদী সংস্থা আরএসএস-এর সদস্য বজরং দলের প্রাক্তন নেতার নাম গোরু পাচারের সঙ্গে যুক্ত হয়ে যে নিঃসন্দেহে অস্বস্তিতে ফেলেছে গেরুয়া শিবিরকে, তা বলাই বাহুল্য।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close