রাজনীতিরাজ্য

কবিগুরুর জন্মস্থান বিশ্বভারতী! বিজেপির পোস্ট ঘিরে উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া, কটাক্ষ তৃণমূলের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: একুশের বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, রাজনৈতিক বাদানুবাদে ততই উত্তপ্ত হচ্ছে বাংলার পরিস্থিতি। একদিকে যেমন লোকসভা নির্বাচনের সাফল্যকে হাতিয়ার করে মসনদ দখলের লড়াইয়ে ঝাঁপাচ্ছে বিজেপি, অন্যদিকে তেমনই ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূলও। এমতাবস্থায় ফের একবার বেফাঁস মন্তব্যের জেরে ঠাট্টার মুখে পড়ল বঙ্গ বিজেপি।

গতকাল রাজ্য বিজেপির তরফ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় করা একটি পোস্ট ঘিরে শুরু হয় বিতর্ক। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডাকে উদ্দেশ্য করে নিজেদের অফিসিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে বিজেপি লেখে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মস্থান বিশ্ব ভারতী। এমন ট্যুইট ঘিরেই শুরু হয় ব্যাপক শোরগোল। কটাক্ষ করতে ছাড়েনি তৃণমূলও।

একুশের নির্বাচনের আগে বুধবারই বাংলায় পা রেখেছেন ভারতীয় জনতা পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রকাশ নাড্ডা। তাঁর একাধিক কর্মসূচিতে ভরে ছিল গোটা দিন। তাঁকে উদ্দেশ্য করে বঙ্গ বিজেপির ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি ট্যুইটে লেখা হয়, ‘বিশ্বভারতী হল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মস্থান: শ্রী জে পি নাড্ডা’। আর এতেই বিতর্কের সূত্রপাত। বিশ্বকবির জন্মস্থান নিয়ে বিজেপির এহেন টুইট ঘিরে কার্যত তোলপাড় শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিজেপির বিরুদ্ধে সমালোচনার আসরে নামে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসও। বিজেপির ভুল শুধরে দিয়ে তৃণমূলের তরফ থেকে পাল্টা ট্যুইট করা হয়, “কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৮৬১ সালে জোড়াসাঁকোতে জন্ম গ্রহণ করেছিলেন এবং তার ৬০ বছর পরে ১৯২১ সালে তিনি বিশ্বভারতী প্রতিষ্ঠা করেন। বহিরাগতদের বাংলায় আসার আগে বাংলার সংস্কৃতি, ইতিহাস ও ঐতিহ্য জেনে আসা উচিত।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বাংলার সংস্কৃতি ঐতিহ্য সম্পর্কে অজ্ঞতা বিজেপির বিরুদ্ধে শাসকদলের অন্যতম প্রধান হাতিয়ার। এর আগেও তাঁদের বিরুদ্ধে এই ধরণের একাধিক অভিযোগ উঠেছে। ‘বহিরাগত’ তকমা দিয়ে আক্রমণও শানিয়েছে ঘাসফুল শিবির।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close