দেশ

‘৬ বছরে বিজেপি বিভেদের রাজনীতি করেছে’, বিস্ফোরক তৃণমূলের ডেরেক ও’ব্রায়েন

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: ভারতে কেন্দ্রীয় সরকারের শাসন কৌশলের বিরুদ্ধে এবার ক্ষোভ উগরে দিলেন ডেরেক ও ব্রায়েন। গত ছয় বছর ধরে দেশে বিজেপি সরকার বিভেদমূলক শাসননীতি চালিয়েছে, এমনটাই দাবি করলেন রাজ্যসভার সদস্য এবং তৃণমূল কংগ্রেসের এই নেতা। বস্তুত, রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিভেদ নীতির অনুসরণ করছেন, বিজেপির তরফ থেকে এমন দাবির পাল্টা হিসেবেই এদিন তিনি এমন মন্তব্য করেছেন।

 

এ বিষয়ে নিজের মত প্রকাশের জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে বেছে নিয়েছেন ডেরেক ও ব্রায়েন। নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে এদিন তিনি লেখেন, “বিজেপির প্রেসিডেন্ট বিভেদ নীতির কথা বলছেন! বিভেদ নীতির কৌশল ঔপনিবেশিক ইতিহাস থেকে শেখা হয়েছে এবং এদেশে দিনের পর দিন তা আপনাদের পার্টিই প্রয়োগ করেছে। গত ৬ বছর ধরে আপনাদের পার্টি এই মহান দেশের মানুষের উপর বিভেদমূলক শাসন নীতি প্রয়োগ করার জন্য সব রকম পন্থা অবলম্বন করেছে।” বলা বাহুল্য, ডেরেক ও ব্রায়েনের এই মন্তব্য ছিল বিজেপি প্রেসিডেন্ট জগত প্রকাশ নাড্ডাকে উদ্দেশ্য করেই।

 

অবশ্য এখানেই শেষ নয়, বিজেপি প্রেসিডেন্ট নাড্ডার বক্তৃতার মধ্যে বড়সড় অসংলগ্নতা আছে বলেও দাবি করেছেন ডেরেক ও ব্রায়েন। তিনি লিখেছেন, “আমরা আপনার আজকের বক্তৃতার সত্যতা যাচাই করেছি। আপনার অন্য দুই “সিনিয়র ” সহকর্মীর মতোই আপনার বক্তব্যও অসংলগ্ন। কিন্তু না, আমরা এখন সেকথা বলে এই পবিত্র উৎসবকে (দুর্গাপুজো)নোংরা করব না।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সোমবার শিলিগুড়িতে একটি সভায় যোগ দিয়েছিলেন ভারতীয় জনতা পার্টির জাতীয় সভাপতি জগত প্রকাশ নাড্ডা। সেখানে তিনি বলেন এই রাজ্যে সরকার মানুষে মানুষে বিভেদ সৃষ্টি করে শাসন করার চেষ্টা করছেন। “পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে বর্তমান তৃণমূল কংগ্রেস সরকার বিভেদমূলক শাসন নীতি চালাচ্ছে। একমাত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরই এই অবস্থায় মানুষকে একত্র করার ক্ষমতা আছে”, বলেন তিনি। এদিন তাঁরই পাল্টা জবাব দেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ডেরেক ও ব্রায়েন।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close