খবরদেশ

অমানবিক! পরিচারিকাকে মারধর, জিভ দিয়ে প্রস্রাব চাটানোর অভিযোগ বিজেপি নেত্রীর বিরুদ্ধে

মহানগর বার্তা ডেস্কঃ একুশ শতকেও মধ্যযুগীয় আচরণের অভিযোগ উঠলো বিজেপি(BJP) নেত্রীর বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগকে কেন্দ্র করে ট্যুইটারে ট্রেন্ডিং “#অ্যারেস্ট সীমা পাত্র”। রাঁচির বিজেপি(BJP) নেত্রী সীমা পাত্রের বিরুদ্ধে ভয়াবহ অভিযোগ করেছেন তাঁর গৃহ সহায়িকা। সামাজিক মাধ্যম উত্তাল এই ঘটনায়।

কীভাবে সামনে এলো ঘটনা?

রাঁচির বিজেপি(BJP) নেত্রী সীমা পাত্রের বাড়িতে গৃহ সহায়িকার কাজ করতেন সুনীতা। তাঁর বাড়ি ঝাড়খন্ডের গুমলা জেলায়। আদিবাসী মহিলা সুনীতা’র বয়স ২১ বছর। সীমা পাত্র’র প্রতিবেশী আইএএস মহেশ্বর পাত্র’র মাধ্যমে খবর পৌঁছায় রাঁচি পুলিশের কাছে। বিজেপি(BJP) নেত্রীর অশোকনগরের বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় সুনীতাকে। তারপরেই প্রকাশ্যে আসে এই ভয়াবহ ঘটনা।

ঠিক কী ঘটেছিলো সুনীতার সঙ্গে?

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ পত্রকে কোনোমতে নিজের কথা জানিয়েছেন সুনীতা। ঠিক মতো কথা বলার শক্তিও ছিলোনা তাঁর। সুনীতার অভিযোগ, ওই বিজেপি নেত্রী মেরে তাঁর দাঁত ভেঙে দেন। গরম ফ্রাইং প্যান দিয়ে মারধরও করা হয় তাঁকে। এমনকি জিভ দিয়ে চেটে বাথরুমে প্রস্রাব পরিস্কার করানো হতো তাঁকে দিয়ে।

সুনীতা এও জানান, সীমা পাত্র তাঁকে একটি ঘরে আটকে রাখতো। খাবারও দিতো না নিয়মিত।

সুনীতা জানিয়েছেন, তিনি এখনো বেঁচে আছেন সীমা পাত্র’র ছেলে আয়ুষ্মানের কারণে। সে তাঁর মায়ের হাত থেকে সুনীতাকে রক্ষা করার চেষ্টা করতো। এরপরেই আয়ুষ্মানকে মানসিক অসুস্থ বলে আরআইএনপিএএস নামে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করে দেওয়া হয়। খবর নিয়ে জানা গেছে, আয়ুষ্মান এখনো সেখানেই আছেন।

সুনীতা কীভাবে পড়লো সীমা পাত্র’র খপ্পরে?

সুনীতা জানিয়েছেন, বছর দশেক আগে পাত্র দম্পতি তাঁকে নিয়োগ করে। গৃহ সহায়িকার কাজ করতেন তিনি। সীমা পাত্র’র কন্যা বৎসলা পাত্র’র কাছে পরবর্তীতে সুনীতাকে পাঠানো হয় দিল্লীতে।

বৎসলা দিল্লী থেকে অন্যত্র ট্রান্সফার হয়ে যান। তখন সুনীতা আবারো সীমা পাত্র’র কাছে রাঁচিতে ফিরে আসেন। তখন থেকেই তাঁর ওপর ওই বিজেপি নেত্রী অত্যাচার করতো বলে সুনীতার অভিযোগ।

এই অত্যাচারের ফলে সুনীতা ফিরে যেতে চেয়েছিলেন তাঁর গ্রামে। কিন্তু তখন তাঁকে না খেতে দিয়ে ঘরে বন্ধ করে রাখা হয়। এমনটাই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন সীমা।

আরও পড়ুন: জয় শাহ একা নন, জাতীয় পতাকাকে স্যালুট না করায় ‘গদ্দার’ তকমা জুটেছিল উপ-রাষ্ট্রপতির

বর্তমানে কেমন আছেন সুনীতা?

সুনীতাকে বিজেপি(BJP) নেত্রীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয়েছে রাঁচি রিমস হাসপাতালে। তাঁর শরীর জুড়ে বিভিন্ন স্থানে অত্যাচারের চিহ্ন। রিমসের ডাক্তাররা জানিয়েছেন, সুনীতার অবস্থা সংকটজনক। ভালো করে হাঁটাচলা করা, এমনকি কথা বলতেও কষ্ট হচ্ছে তাঁর। তাঁর স্বাভাবিক হতে বেশ কিছুটা সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা।

আরও পড়ুন: গান্ধীজির পর নরেন্দ্র মোদীই দেশের মানুষের মন বোঝে, দাবি রাজনাথ সিং এর

এই ঘটনায়,ভারতীয় পেনাল কোডের ‘এসসি/এসটি অ্যাক্ট,১৯৮৯’ এর ৩২৩, ৩২৫, ৩৪৬, ৩৭৪ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। রাঁচির আরগোরা থানায় স্বতপ্রণোদিত এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। যদিও এখনো পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়নি কেউ। তবে বিজেপির তরফে সীমাকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close