রাজনীতিরাজ্য

“জুতো মেরে পা ভেঙে দেব”, নিজের দলের কর্মীদের হুমকি বিজেপি সাংসদ সৌমিত্রের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক:আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের একবার সামনে এল বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল। বিতর্কে জড়ালেন বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে প্রকাশ্য সভায় এদিন “জুতো মেরে পা ভেঙে দেওয়া”র হুমকি দিয়েছেন তিনি। জানা যাচ্ছে, বিজেপির নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতি সভাতে কর্মীদের উদ্দেশ্যে ওই মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছেন সাংসদ। বিষ্ণুপুরের বাসস্ট্যান্ডে উক্ত সভাটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

 

দলের আয়োজিত প্রকাশ্য ওই সভায় ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি দলেরই কিছু কর্মীর বিরুদ্ধে দ্বিচারিতার অভিযোগ আনেন। বলেন, “যাঁরা কলকাতায় গিয়ে দিলীপ ঘোষ জিন্দাবাদ, সৌমিত্র খাঁ জিন্দাবাদ বলছেন তাঁরাই আবার বিষ্ণুপুরে বলছেন এটা বিজেপি-র সভা নয়৷” এই অসততা ও দ্বিচারিতার অপরাধে কর্মীদের জুতো মেরে পা ভেঙে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন তিনি। তিনি বলেন বিজেপি দলের কেউ কেউ প্রস্তুতি সভাতে না আসার কথা বলেছেন। তাঁদের উদ্দেশ্যে সৌমিত্র খাঁর হুমকি, “আগুন জ্বালিও না, আগুন জ্বালালে অনেক দূর যাবে৷”

 

এভাবেই দলের অাভ্যন্তরীণ গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব প্রকাশ করে নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন সৌমিত্র খাঁ। বাসস্ট্যান্ডের প্রকাশ্য জনসভায় এরূপ মন্তব্য করতে দ্বিধা করেননি তিনি। অবশ্য এদিন তিনি দলের কোনও নেতা বা কর্মীর নাম করেননি। “দলের কেউ কেউ” সম্বোধন করেই সাংসদ তাঁর বক্তব্য রাখেন। মঙ্গলবার বিষ্ণুপুর প্রস্তুতি সভায় দেখা যায়নি বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপি সভাপতি হরকালী প্রতিহারকে, ছিলেন না বাঁকুড়া সাংগঠনিক জেলার সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্রকেও৷

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, বেশ কিছুদিন আগে বাঁকুড়ার সাংগঠনিক জেলা বিজেপি সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র দলের ছাতনা মণ্ডল সভাপতিকে ফোনে রাজ্য যুব সভাপতি সৌমিত্র খাঁ সম্পর্কে বিতর্কিত বেশ কিছু মন্তব্য করেছিলেন। সেই ফোন রেকর্ডিং সোশ্যাল মিডিয়াতে দ্রুত গতিতে ভাইর‍্যাল হয়ে যায়। জেলা সভাপতির এহেন মন্তব্যে অস্বস্তিতে পড়ে বিজেপি। এই উত্তপ্ত প্রেক্ষাপটেই গুরত্বপূর্ণ কর্মীদের অনুপস্থিতিতে সৌমিত্র খাঁর এরূপ বেফাঁস মন্তব্য দলের মধ্যেকার গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব যে চরমে উঠেছে সেই বার্তাই বহন করছে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close