দেশরাজনীতি

“ভারতীয় বিচার ব্যবস্থার কালো দিন”, বাবরি মামলার রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল ওয়াইসিদের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক:বাবরি মামলার রায় নিয়ে এবার মুখ খুললেন আসাদুদ্দীন ওয়াইসি। এই রায় নিয়ে চূড়ান্ত অসন্তোষ প্রকাশ করে অল ইন্ডিয়া মজলিশ-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন বা মিম প্রেসিডেন্ট জানান রায় ঘোষণায় তিনি অসহায় বোধ করছেন। বুধবার সিবিআই এর বিশেষ আদালতের রায় ঘোষণার পরই একথা জানান ওয়াইসি। ভারতের বিচার ব্যবস্থার ইতিহাসে আজকের দিনটাকে কালো দিন বলেও অভিহিত করেন তিনি।

 

এদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে এসে ওয়াইসি বলেন, “আদালত বলছে বাবরি ধ্বংসে কোনো ষড়যন্ত্র ছিল না। তাহলে আমাকে বলুন ওই ঘটনা যে স্বাভাবিকভাবে ঘটেনি তা প্রমাণ করতে কত দিন লাগবে। আজ একজন ভারতীয় মুসলিম হিসেবে নিজেকে অসহায় লাগছে। ঠিক এরকমই অসহায় লেগেছিল ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর। গোটা দুনিয়া দেখেছে কারা বাবরি মসজিদে লোক জড়ো করেছিল। কাদের উপস্থিতিতে মসজিদ ভেঙে ফেলা হয়েছিল।কারা বাবরি ধ্বংসের পর মিষ্টি বিলি করেছিল।” তিনি আরো বলেছেন, “মানুষ কি দেখেন নি, উমা ভারতী কী ভাবে বলেছিলেন ” এক ধাক্কা অউর দো, বাবরি মসজিদ তোর দো”? জানা গেছে, বাবরি ধ্বংস নিয়ে সিবিআই এর বিশেষ আদালতের আজকের এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাচ্ছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোন্যাল ল বোর্ড। বোর্ডের ওই সিদ্ধান্তকে স্বাগতও জানিয়েছেন ওয়াইসি। এছাড়া, এই রায় সম্বন্ধে পার্সোন্যাল ল বোর্ডের সেক্রেটারি জাফরিয়াব জিলানির বক্তব্য, “বাবরি নিয়ে সিবিআই আদালত যে রায় দিয়েছে তা ভুল। ওই রায়ের বিরুদ্ধে আমরা হাইকোর্টে আপিল করব।”

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ষড়যন্ত্র নিয়ে দীর্ঘ ২৮ বছর পর আজ সিবিআই এর বিশেষ আদালত রায় ঘোষণা করেছে। এতে ঘটনায় অভিযুক্ত লাল কৃষ্ণ আদবানি,মুরলী মনোহর সহ মোট ৩২ জনকেই সম্পূর্ণ নির্দোষ ঘোষণা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনায় আদেও কোনও ষড়যন্ত্র হয় নি। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় নি। অন্যদিকে, আদালতের রায়কে মেনে নিয়েছেন জানিয়েছেন বাবরি কাণ্ডে মামলাকারী মহম্মদ ইকবাল আনসারি। রায় শুনে তিনি বলেন, “ভালোই হয়েছে। মামলা শেষ হল। এবার সবাই শান্তিতে থাকবে।”

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close