বিনোদন

ফের বলিউডে মাদক যোগের পর্দা ফাঁস, সুশান্ত মামলায় গ্রেফতার আরও এক

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ সুশান্ত মৃত্যু মামলার রহস্যভেদের সময়সীমা পেরিয়েছে প্রায় ৯০ দিনেরও বেশি। ছেলের সকল টাকা নয়ছয় করেছে রিয়া ও তার পরিবার এরমই অভিযোগ দায়ের করেন সুশান্ত পিতা কে কে সিং। তার পরই সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুযায়ী গোটা তদন্ত ভার মুম্বাই পুলিশের থেকে সরসসরি হস্তান্তরিত যায় সিবিআইয়ের হাতে। সেই মামলার তদন্ত করতে গিয়েই কেঁচো খুড়তে বেড়িয়ে আসে কেউটে । এই মামলায় উঠে আসে মাদক যোগের কথা। ফলে সুশান্ত মৃত্যু মামলা কান্ডের মোড় ঘুরে যায় মাদক কান্ডে। এবার সেই মাদক কাণ্ডে রিয়া ,সৌভিক, স্যামুয়েলে সহ ১৬ জনের পাশাপাশি রাহিল ভিশ্রাম নামক এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন এনসিবি।

অপর দিকে, এই মাদক কান্ডকে নিয়ে সর্বসমক্ষে সুর চড়িয়েছেন বলিউড কুইন কঙ্গনা রানায়ত। তিনি তার আওয়াজ বুলন্দ করে বলিউডের অন্ধকার দিকের কথা তুলে ধরেন এবং তিনি কোন রাখ ঢাক না রেখে সরাসরি রনভীর সিং, রনবীর কাপুর, ও পরিচালক অয়ন মুখার্জির উপর নিশান করেন। তিনি নিজেও যে মাদকের নেশায় আসক্ত হয়ে পড়েছিলেন তা জাতীয় গণমাধ্যমে দ্বারা সর্বসমক্ষে বলতে পিছপা হননি।

এরই মধ্যে সুশান্ত প্রেমিকা রিয়া ও তাঁর ম্যানেজারের মধ্যে মাদক লেনদেন নিয়ে কিছু মেসেজ ফাঁস হয় সোশ্যাল মিডিয়ায় , যাকে কেন্দ্র করেই এনসিবি দল মুম্বাই আসে। এনসিবি আধিকারিকরা প্রথমে ২৩ বছরের কারামজিত সিং কে গ্রেফতার করে তার বাড়ি থেকে মারিজুয়ানা এবং হাসিস নামক মাদক উদ্ধারের জন্য। এর পর ফাঁস হতে থাকে একে একে সৌভিক স্যমুয়েল মিরান্ডা, দীপেশ সাওয়ান্ত , অনুজ, রিয়া সহ আরও ১৬ জনের নাম। একে একে সকলের হতে হাতকড়া পড়ায় নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এনসিবি এবার শিকরের সন্ধানে করতে গিয়ে আজ রাহিল ভিশ্রাম নামে এক ব্যক্তিকে তার মুম্বাইয়ের বাড়ি থেকে ৯০০ গ্রাম চরস আবাং ৪.৫ লক্ষ টাকা সহ গ্রেফতার করেন। জেরার মুখে রাহিল স্বীকার করেন, তিনি বলিউডের সেলেবদের ড্রাগস সরবরাহ করেন। তারও একজন মেন্টর আছে।”

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close