দেশ

বিহারে বিজেপির চেয়ে বেশি আসনে প্রার্থী কংগ্রেসের, জোর কদমে চলছে নির্বাচনী প্রস্তুতি

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক:দেশ জুড়ে হাথরাস কান্ডের উত্তেজনার মাঝেই বিহারের বিধানসভা নির্বাচনের জন্য প্রকাশিত হতে চলেছে কংগ্রেস এবং বিজেপির প্রার্থীতালিকা।সূত্রের খবর, আজ সোমবার বিহারে পঞ্চাশ জনেরও বেশি প্রার্থীর নামের তালিকা প্রকাশ করতে পারে বিজেপি। কংগ্রেসও আজ তাঁদের দলের কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির সঙ্গে আলোচনা সভায় বিহার নির্বাচনের প্রথম প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।আগামী ২৮শে অক্টোবর বিহারের বিধানসভার তিন দফা নির্বাচন শুরু হবে।

 

বস্তুত, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগেই বিহারে জোর ধাক্কা খেয়েছিল ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স তথা এনডিএ জোট। এই জোট থেকে মতাদর্শগত পার্থক্যের কারণে বেরিয়ে গিয়েছিল লোক জনশক্তি পার্টি বা এলজেপি। বিহারের তিন দফা নির্বাচনে তাঁরা একাই লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এলজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক আবদুল খালিক বলেন, ‘মতাদর্শগত পার্থক্যের জন্য আসন্ন বিহার বিধানসভা নির্বাচনে জনতা দল (ইউনাইটেড)-এর সঙ্গে লড়াই করবে না লোক জনশক্তি পার্টি (এলজেপি)।’

 

শোনা যাচ্ছে কংগ্রেস রাষ্ট্রীয় জনতা দল বা আরজেডির সঙ্গে জোটবদ্ধ হয়ে বিহারের প্রায় ৭০টি বিধানসভা কেন্দ্রে তাঁদের প্রার্থী দেবে। ২৪৩টি সিটের মধ্যে এই পরিসংখ্যানই ২০১০ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত সর্বাধিক। মোট ২৪৩টি সিটের মধ্যে আরজেডি জোট ১৪৪টি কেন্দ্রে লড়বে, বাম দলগুলি গ্র্যান্ড অ্যালায়েন্সের তরফ থেকে লড়বে ২৯টি কেন্দ্রে। বিহার বিধানসভা নির্বাচনে বিরোধী জোটের নেতৃত্ব দেবেন রাষ্ট্রীয় জনতা দলের (আরজেডি) সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ যাদবের পুত্র তেজস্বী যাদব। বিরোধী জোটের আসন বণ্টনের সময় আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদবকেই শনিবার মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। বিধানসভা ভোটের আসন ভাগাভাগির পর যৌথ সাংবাদিক বৈঠক করে কংগ্রেসের তরফে এ কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

 

প্রসঙ্গত, এনডিএ জোটের বিষয়ে জানা গেছে, তাঁদের বিরুদ্ধে ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ লড়াইয়ে নামবে এলজেপি। যদিও আগে এলজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে জানানো হয়েছিল, নীতিশ কুমারের জেডিইউয়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবে তারা। যে আসনে বিজেপি প্রার্থী দেবে, সেখানে দাঁড়াবে না এলজেপি। সেই ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ আবহের সম্পর্কের বিষয়টি রবিবারও ফুটে উঠেছে। এলজেপির সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘জাতীয় স্তর এবং লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির সঙ্গে মজবুত জোট আছে।” সবমিলিয়ে বিহার জুড়ে আসন্ন নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি এখন তুঙ্গে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close