রাজ্য

মানুষ বিরোধী দল বিজেপি তৃণমূল, বাম-কংগ্রেস জোটেই আস্থা মানুষের, মত সুজন চক্রবর্তীর

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের বিজেপি ও তৃণমূলকে তোপ দাগলেন সিপিআইএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। তিনি ওই দুই দলকে আদতে সাধারণ মানুষ-বিরোধী দল বলে মন্তব্য করেছেন। পাশাপাশি আগামী বছরের বিধানসভা নির্বাচনে যে বাম-কংগ্রেস জোটই রাজ্যে সরকার গড়তে চলেছে সে বিষয়েও নিজের আস্থার কথা জানিয়েছেন বর্ষীয়ান এই সিপিআইএম নেতা।

রবিবার দলীয় একটি কর্ম সভায় অংশগ্রহণ করতে ব্যারাকপুর গিয়েছিলেন সুজন চক্রবর্তী। অবিলম্বে লোকাল ট্রেন চালু ও অন্যান্য দাবিতে শ্রমিক সংগঠন সিটুর নেতৃত্বে আয়োজিত এই গণকনভেনশনে এদিন তিনি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সিটু নেত্রী গার্গী চট্টোপাধ্যায়, সিপিএম নেতা নেপাল দেব ভট্টাচার্য, প্রাক্তন ফরোয়ার্ড ব্লক বিধায়ক হরিপদ বিশ্বাস প্রমুখ। এখানেই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস এবং অপর বিরোধী দল বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন সুজন চক্রবর্তী।

এদিন তিনি বলেন, “তৃণমূলের রিজক্টেড নেতারাই তো বিজেপিতে আলো করে বসে রয়েছে। তৃণমূলের উপর আর মানুষের কোনও আস্থা নেই। আর বিজেপিকে সরকারে আনার কথা সাধারণ মানুষ ভাববে না। তাই আমি নিশ্চিত, ২০২১ নির্বাচনে বাম-কংগ্রেসের সরকার গড়বেন সাধারণ জনগণ।” শুধু তাই নয়, এ ব্যাপারে আরো একধাপ এগিয়ে গিয়ে তাঁর বক্তব্য, “রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসার বলি হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। তা নিয়ে উভয় দলের মধ্যে দড়ি টানাটানি চলছে। সকালে যে তৃণমূল, বিকেলে আবার সে বিজেপি।”

বস্তুত, ক্ষমতায় না থাকলেও করোনা আবহে লকডাউন চলাকালীন সময়ে সাধারণ মানুষের পাশে থেকেছেন বাম কর্মীরা। জায়গায় জায়গায় শ্রমজীবী ক্যান্টিনের মাধ্যমে বিনামূল্যে বা স্বল্পমূল্যে গরীব মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন তাঁরা। সেই কারণেই সুজন চক্রবর্তীর মতে বামেদের প্রতি মানুষের আস্থা বেড়েছে। তাঁদেরকেই আবার ক্ষমতায় দেখতে চান মানুষ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বামেদের ফল একেবারেই আশানুরূপ ছিল না। আগামী বছরের বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বামেরা জোট বেঁধেছেন কংগ্রেসের সঙ্গে। মতাদর্শগত পার্থক্য ভুলে আপাতত বিজেপি এবং তৃণমূলের বিরোধিতাই যে লক্ষ্য, সেকথাও স্পষ্ট করেছেন বাম-কংগ্রেস নেতৃবৃন্দ।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close