আম আদমি

বিমান-সেলিম নয়, তৃণমূলের বিরুদ্ধে বামেদের ‘ক্যাপ্টেন’ এখন মীনাক্ষী! ফেসবুক পোস্টে জল্পনা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বামেদের মুখ কে? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধিতায় প্রধান ভূমিকা কার? সেনাপতি কি মহাম্মদ সেলিম নাকি কোনও যুব মুখ! ফের রাজনৈতিকভাবে ঘুরে দাঁড়ানোর বাম-চেষ্টায় ঘুরেফিরে আসে এই প্রশ্ন। আলোচনা হয় বঙ্গের রাজনৈতিক আঙিনায়। ঠিক এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে এবার প্রকাশ্যে এল একটি পোস্টার। যা ফের বাম-মুখ বিতর্কে ইন্ধন জুগিয়েছে। কী রয়েছে ওই পোস্টারে।

আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ধর্মতলা চলো-র ডাক দিয়েছে বামেদের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই। ওইদিন দুপুর ১২টায় কলকাতার প্রাণকেন্দ্রে ইনসাফ সভা-র (Insaf Sabha) ডাক দেওয়া হয়েছে। যদিও এখনও ওই সভার অনুমতি দেয়নি পুলিশ। যদিও অনুমতি না পাওয়া গেলেও সভা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন বামনেত্রী মীনাক্ষী। আনিস খান (Anish Khan) হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ-সহ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক ইস্যুতে এই সভার আয়োজন করা হয়েছে। আর এই কর্মসূচির প্রচারেই সোশ্যাল-দুনিয়ায় ছড়িয়েছে ওই পোস্টার। যেখানে লেখা রয়েছে ‘ডেকেছে ক্যাপ্টেন’! বামনেত্রী মীনাক্ষী (Minakshi Mukherjee) মুখোপাধ্যায়ের ছবি দিয়ে ওই পোস্টার ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এমনকি হুগলি জেলা সিপিএমের (CPIM) ফেসবুক পেজ থেকেও পোস্ট হয়েছে ওই ছবি। দেওয়াল লিখন থেকে শুরু করে যেকোনও প্রচারেই ব্যবহৃত হয়েছে ‘ডেকেছে ক্যাপ্টেন’ (DekecheCaptain) হ্যাশট্যাগ। এর পরেই জল্পনা শুরু হয়েছে, এই ক্যাপ্টেন কি তাহলে মীনাক্ষী! নন্দীগ্রামে (Nandigram) কঠিন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে লড়াই করা বামনেত্রী-ই কি এবার বামেদের মুখ!

যদিও এই প্রসঙ্গে কী বলছেন মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়? তিনি মহানগর বার্তা-কে জানান, ”আমার চোখে এমন কোনও পোস্টার পড়েনি। আমি দেখিনি। তাই এই প্রসঙ্গে কিছু বলব না। এখন ২০ তারিখের সভা নিয়ে প্রচার করছি।” এই প্রসঙ্গে প্রকাশ্যে মুখ খুলতে নারাজ সিপিএম নেতৃত্বও। তাঁদের একাংশের দাবি, এই প্রচারে খারাপ কিছু নেই। মীনাক্ষী রাজ্যের যুবনেত্রী। জনপ্রিয় মুখ। তাঁর নেতৃত্বে থাকা সংগঠনের ডাকে সভা। সেখানে দাঁড়িয়ে ক্যাপ্টেন হিসেবে তাঁকে যদি কেউ কেউ সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্বোধন করে, সেটা খারাপের নয় বলেই মত তাঁদের।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close