খেলা

“আমি হিন্দু তাই খেলতে দিত না মিথ্যুক চরিত্রহীন আফ্রিদি”, বিস্ফোরক ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়া

মহানগর বার্তা ডেস্ক: পাকিস্তানের জাতীয় দলের ক্রিকেট টিমে ছিলেন দানিশ কানেরিয়া। পাকিস্তানে একমাত্র হিন্দু ক্রিকেটার ছিলেন দানিশ। খেলা ছাড়ার পর তাঁর অভিযোগের নিশানায় দেখা যায় শাহিদ আফ্রিদিকে। পাকিস্তানের দলের প্রাক্তন অধিনায়ক শাহিদের বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেন দানিশ।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ড থেকে সাসপেন্ড হন দানিশ। তাঁর বিরুদ্ধে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগ তোলা হয়। যদিও এবিষয়ে দানিশ বলেন, “আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছিল। আমার নামটা জড়ানো হয়েছিল। যার সঙ্গে আমাকে জড়ানো হয় সে শাহিদ আফ্রিদিরও বন্ধু ছিল। কিন্তু আমাকে টার্গেট করা হল।” শাহিদের বিরুদ্ধে এইসব অভিযোগ সামনে আসতেই তার ওপর ক্ষুদ্ধ নেটিজেনরা।

এবিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে দানিশ বলেন, “শোয়েব আখতার হলেন প্রথম ব্যক্তি যিনি আমার সমস্যা বুঝেছিলেন। তাঁকে ধন্যবাদ যে তিনি জানান যে আমি সমস্যায় রয়েছি। পরে যদিও ওকে অনেক চাপ দেওয়া হয়েছিল আমার পক্ষে কথা বলার জন্য। তবে হ্যাঁ, আমার সঙ্গে এটা হয়েছিল। শাহিদ আফ্রিদি সবসময় আমাকে নিচু চোখে দেখত। আমরা একই সঙ্গে খেলতাম, কিন্তু ও আমাকে পাত্তা দিত না। আমাকে বেঞ্চে বসিয়ে রাখত ও ওডিআই খেলতে দিত না, কারণ আমি হিন্দু।”

আফ্রিদির বিরুদ্ধে মিথ্যুক, চরিত্রহীন এই অভিযোগ উঠলেও এবিষয়ে মুখ খোলেননি তিনি। দানিশ আরো বলেন, “আফ্রিদি আমাকে দলে চাইতেন না। ও মিথ্যুক, ও চরিত্রহীন। আমি এসবের দিকে নজর না দিয়ে ক্রিকেটে ফোকাস করতাম। শাহিদ আফ্রিদি বলেন একমাত্র ব্যক্তি যিনি বাকি প্লেয়ারদের আমার বিরুদ্ধে লাগিয়েছিল। আমি ভালো খেলছিলাম আর শাহিদ আফ্রিদি তাতে জ্বলত। আমি পাকিস্তানের হয়ে খেলার জন্য গর্ববোধ করতাম।”

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close