রাজনীতি

‘গণশক্তির স্টলে ভিড় হবে, কিন্তু মন্ডপে হবে না!’, পুজোর রায় নিয়ে সিপিএমকে কটাক্ষ দেবাংশুর

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: পুজোর মুখে পশ্চিমবঙ্গের বামপন্থী দলগুলিকে কটাক্ষ করে ফের সরব হলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য। তৃণমূল কংগ্রেসের এই তরুণ সমর্থক এদিন একটি ভিডিও বার্তায় রাজ্যের ‘৭% বাম সমর্থকদের’ উদ্দেশ্যে ছুঁড়ে দিয়েছেন কিছু প্রশ্ন। মূলত দুর্গাপুজো আয়োজনের বিরুদ্ধে বামেদের সক্রিতাকেই তুলোধুনো করেছেন তিনি।

বুধবার সন্ধ্যায় দেবাংশু ভট্টাচার্য তাঁর ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও বার্তা পোস্ট করেন। ভিডিওটির শিরোনাম হিসেবে বামেদের তীব্র ব্যঙ্গ করে তিনি লিখেছেন, “হে ৭% অখন্ড মাকুসমিতি, কিছু প্রশ্নের উত্তর চাই যে!” শুধু তাই নয়, ভিডিওর সঙ্গে লেখা বার্তায় হাইকোর্টের পুজোর রায়কে সমর্থনের জন্যেও বামেদের কটাক্ষ করেছেন তিনি। তাঁর কথায়, “গণশক্তির স্টলে ভিড় হবে, কিন্তু মন্ডপে হবে না! তাই না?”

হে ৭% অখন্ড মাকুসমিতি, কিছু প্রশ্নের উত্তর চাই যে !

হে ৭% অখন্ড মাকুসমিতি, গণশক্তির স্টলে ভিড় হবে, কিন্তু মণ্ডপে হবে না ! তাই না ?

Posted by Debangshu Bhattacharya on Wednesday, October 21, 2020

বিভিন্ন জায়গায় সিপিএম-এর কমিউনিটি কিচেন থেকে শুরু করে, হাইকোর্টের রায়- দেবাংশু ভট্টাচার্যের এদিনের ভিডিও বার্তায় আদ্যপান্ত ছিল সিপিএম বিরোধিতা। কমিউনিটি কিচেনে ২০ টাকায় যে খাবার দেওয়া হয়েছে তা যে আসলে সাধারণ মানুষকে বোকা বানানোর ‘টোপ’, সেকথাই স্পষ্ট করেন দেবাংশু। এছাড়া তিনি জানান, হাইকোর্টের রায়ের দিনেই শহরে আয়োজিত হয়েছিল সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর সভা। সেখানকার ভিড়ের ছবি দেখিয়ে দেবাংশুর প্রশ্ন, “এই মিটিং মিছিল থেকে যে করোনা ছড়াবে তার জন্য বেডের ব্যবস্থা কি আলিমুদ্দিন করছে?”

“যে খেটে খাওয়া মানুষগুলো দুর্গাপুজোর চারটে দিনের উপর নির্ভর করে থাকেন, সেই মানুষগুলোর পেটে বামপন্থীরা লাথি মারলেন কেন?” প্রশ্ন দেবাংশুর। করোনা আবহে আনলক প্রক্রিয়ায় প্রায় সমস্ত ক্ষেত্রই পুনরায় স্বাভাবিক হয়ে গেছে। করোনা বিধি মেনে নিয়ে পুজো মন্ডপে দর্শক প্রবেশে কি বাধা ছিল সেই প্রশ্নই এদিন আরো একবার ছুঁড়ে দিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, তৃণমূল কংগ্রেসের এই তরুণ সমর্থক দেবাংশু ভট্টাচার্য বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় অতি সক্রিয়। বিরোধী দল গুলির বিরুদ্ধে নিজের ফেসবুক পেজে একাধিক বার কলম ধরেছেন তিনি। কিছুদিন আগেই হাইকোর্টের পুজো রায়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে কবিতা লিখেছিলেন তিনি। এবার সেই সূত্রেই রাজ্যের বামপন্থী দলগুলোকেও এক হাত নিলেন।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close