দেশ

ধর্মঘটের মাঝেই দিল্লিতে গৃহবন্দী করা হল কেজরিওয়ালকে, অভিযোগের তির অমিত শাহের দিকে

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে কৃষক আন্দোলন নিয়ে জারি তরজা। কেন্দ্রীয় সরকারের এই আইনের বিরুদ্ধে আজ ভারত জুড়ে কৃষক ধর্মঘট পালিত হচ্ছে।সেই নিয়েই এখন কার্যত উত্তাল দিল্লি। এর মাঝেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে গৃহবন্দী করার অভিযোগ উঠল বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে।

গতকালই কৃষকদের সমর্থন জানাতে দিল্লির সিংঘু বর্ডারে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে দেখা করে ফেরার পরই দিল্লিতে গৃহবন্দী করা হয়েছে তাকে, এমনটাই দাবি তাঁর দলের তরফ থেকে।এ দিন ধর্মঘটের মাঝেই দিল্লি পুলিশের তরফে কেজরীবালকে গৃহবন্দি করা হয় বলে জানিয়েছে আম আদমি পার্টি (আপ)। তাদের অভিযোগ, কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন বলেই কেন্দ্রের নির্দেশ দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে গৃহবন্দি করা হয়েছে।

বস্তুত আজ মঙ্গলবার দিল্লিতে ৪ ঘন্টা ব্যাপী চাক্কা জ্যাম করার ডাক দিয়েছেন আন্দোলনরত কৃষকরা। তা শুরু হওয়ার আগেই এ দিন সকালে আপের টুইটার হ্যান্ডল থেকে কেজরীবালের গৃহবন্দি হওয়ার বিষয়টি সামনে আনা হয়। সেখানে লেখা হয়, “বিজেপির দখলে থাকা দিল্লি পুলিশ মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবালকে গৃহবন্দি করেছে। কারণ গতকালই সিঙ্ঘু সীমানায় আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন উনি। এই মুহূর্তে ওঁর বাসভবনে কারও প্রবেশ এবং সেখান থেকে বেরিয়ে আসার অনুমতি নেই।”

উল্লেখ্য রাজধানী দিল্লির পুলিশ আদতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীনে। তবে কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নির্দেশেই গৃহবন্দী করা হল দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে? উঠেছে প্রশ্ন।

কিন্তু দিল্লি পুলিশ গৃহবন্দীর সমস্ত দাবিকেই উড়িয়ে দিয়েছে। উত্তর দিল্লির ডিসিপি অ্যান্টো আলফোনসে বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রীকে গৃহবন্দি করা হয়নি। ওঁর বাসভবনের সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে মাত্র, যাতে আপের সঙ্গে অন্য কোনও দলের সংঘর্ষ না বাধে।’’ সব মিলিয়ে কৃষক আন্দোলনের আবহে যে দিল্লির পরিস্থিতি ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে চলেছে তা বলাই বাহুল্য।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close