খবরদেশ

‘মুসলিম ডেলিভারি বয় পাঠাবেন না’! সুইগিকে ‘আজব আবদার’ গ্রাহকের

মহানগর বার্তা ডেস্কঃ মুসলমান ডেলিভারি বয়(Delivery Boy) চাইনা,খাবার অর্ডার দেওয়ার পরই গ্রাহকের আজব আবদার। আর তা ভাইরাল হতেই সরগরম নেটদুনিয়া। কিছুদিন আগেই অভিনেত্রী সুদীপা অনপাইন ফুড ডেলিভারি সংস্থার ডেলিভারি বয়দের(Delivery Boy) নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। এবার সামনে এল গ্রাহকের এক আজব মেসেজ। তাতে লেখা ‘মুসলমান ডেলিভারি বয় যেন খাবার ডেলিভারি না করে’।

হায়দরাবাদে ফুড-অ্যাপ সুইগিকে লেখা এই বার্তা ভাইরাল হতেই ফের বিতর্ক নেটপাড়াতে। ভাইরাল হওয়া স্ক্রিনশটটিতে দেখা যাচ্ছে, একজন গ্রাহক মুসলিম ব্যক্তির হাত থেকে খাবার না পাঠানোর নির্দেশ দিয়ে সুইগিকে অনুরোধ করেছেন। গ্রাহকের আবদার তাদের অর্ডার শুধুমাত্র যেন ‘হিন্দু ডেলিভারি বয়’কে দিয়েই পাঠানো হয়। গ্রাহকের অনুরোধের এই স্ক্রিনশটটি ঘিরে হইচই পরে গেছে সামাজিক মাধ্যমে। নেটিজেনদের একাংশ এই মানসিকতার প্রতিবাদ জছিয়েছেন। অনেকেই প্রতিবাদের ভাষায় লিখেছেন “খাবারের কোন জাত হয় না”।

আরও পড়ুন:ব্যাপক ভোট হবে’, জেলে থেকেও পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে আশার বাণী কেষ্টর

এই পুরো ঘটনাটি ঘটে ২৯ আগস্ট বিকেলে। একজন গ্রাহক হায়দ্রাবাদের মহাদেবপুরীতে তার বাড়ি থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে একটি দোকান থেকে খাবারের অর্ডার দিয়েছিলেন সুইগি অ্যাপের মাধ্যমে। আর তখনই তিনি সুইগিকে এই মেসেজটি লিখেছেন– ‘মুসলিম ডেলিভারি পার্সন(Delivery Boy) চাই না।’

স্ক্রিনশটটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সালাউদ্দিন নামে এক ব্যক্তি। তিনি সুইগিকে এই ধরনের গ্রাহকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করেছেন। তিনি বলেছেন, “যারা খাবারে জাত দেখেন তাদের ডেলিভারি অবিলম্বে বয়কট করা উচিৎ”। সুইগিকে ট্যাগ করে তিনি লিখেছেন- ধর্ম একে অপরের সঙ্গে বিভেদ শেখায় না। তবে এ বিষয়ে সুইগির পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close