খবররাজ্য

‘দিদি ভাড়া দিলে নবান্নের ১৪ তলা বামেদের হবে’, দীপ্সিতাকে কটাক্ষ দেবাংশুর

মহানগর বার্তা ডেস্ক: শুক্রবার কলেজ স্ট্রিটে SFI-র ছাত্র সমাবেশে বক্তৃতা রাখতে গিয়ে এসএফআইয়ের সর্বভারতীয় নেত্রী দীপ্সিতা ধর হুংকার দিয়ে বলেন “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোদ্দতলা নব্বান্নও আমাদের হবে।” তাঁর এই বক্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়েছেন তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য। নিজের ভেরিফাইড সোশ্যাল মিডিয়ায় দীপ্সিতা ধরের মন্তব্য তুলে ধরে তিনি লেখেন,”হতে পারে। দিদি যদি কখনো ভাড়া দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।”

উল্লেখ্য,কেন্দ্রের নয়া শিক্ষানীতি এবং বাংলার শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির প্রতিবাদে সুর চড়াচ্ছে বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই। দেশের বিভিন্ন রাজ্য ঘুরে চলতি মাসের ১ তারিখে বাংলায় প্রবেশ করেছে এসএফআইয়ের জাঠা। গত ১ অগস্ট বাংলার পাঁচ প্রান্ত থেকে এই কর্মসূচির সূচনা হয়। পূর্বাঞ্চল এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলে যে জাঠার যাত্রা শুরু হয় তা একদিন আগেই কলকাতায় প্রবেশ করে। শুক্রবারই তার সমাপ্তি হয়। সেই উপলক্ষে কলেজ স্ট্রিটে বিশাল সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

এই সমাবেশ থেকেই মোদি মমতাকে একযোগে তোপ দাগতে দেখা গেল এসএফআইয়ের সর্বভারতীয় নেত্রী দীপ্সিতা ধরকে। সমাবেশ মঞ্চ থেকে কেন্দ্র-রাজ্যের বিরুদ্ধে একযোগে আক্রমণ শানিয়ে দীপ্সিতা ধর বলেন, “তৃণমূল-বিজেপি দুই দলই আরএসএসের পরিবারের অংশ। তাঁদের মধ্যে পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে। দুই দলের বিরুদ্ধে একমাত্র রাজনৈতিক বিরোধী দল আমরাই, বামপন্থীরা। যদি রাস্তাগুলি আমাদের থাকে তবে আগামীদিনে লোকসভা, বিধানসভা, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোদ্দতলা নব্বান্নও আমাদের হবে।”

এদিকে শেষ বিধানসভা নির্বাচনে কার্যত ভরাডুবি হয়েছে বামেদের। বিধানসভাতে বর্তমানে একজনও বাম বিধায়ক নেই। সেই পরাজয়ের গ্লানি মুছে গোটা রাজ্যেই ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে তাঁরা। নিয়োগ কেলেঙ্কারি থেকে গরু পাচার, কয়লা পাচার মামলায় মমতার সরকারের বিরুদ্ধে লাগাতার তোপ দেগে চলছেন বাম নেতারা। রাজ্যের নানা প্রান্তে চলছে আইন-অমান্য আন্দোলন। প্রতিবাদ করতে গিয়ে জেল হয়েছে সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক মণ্ডলী ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আভাস রায়চৌধুরীর। ইতিহাস বলছে বিগত ৪৫ বছরে সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির কোনও সদস্যই এভাবে আন্দোলন করতে গিয়ে জেলে যাননি। অন্যদিকে রাজ্য কার্যত ‘শূন্য’ হয়ে যাওয়া দলের বিরুদ্ধে বিগত কয়েক সপ্তাহে লাগাতার তোপ দাগতে দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। মমতার তোপের মুখে পড়েছেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা সিপিআইএমের রাজ্য সভার সাংসদ বিকাশ ভট্টাচার্য। বছর ঘুরতেই পঞ্চায়েত ভোট। তার আগে বামেদের এই ‘নবজাগরণ’ শাসকের অস্বস্তি খানিক বাড়াবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহলের একটা বড় অংশ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close