খবররাজ্য

‘অনুদান নিয়ে যাদের সমস্যা তাঁরা পুজো এলে মার্কসের বই বিক্রি করে’,বামেদের কটাক্ষ কল্যাণের

মহানগর বার্তা ডেস্ক: দুর্গাপুজো(Durga Puja) আসন্ন। ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে দুর্গাপুজোর(Durga Puja) প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। প্রতিবছরই নতুন নতুন থিম ও প্রতিমা উপহার দিয়ে দর্শকের নজর কাড়ে পূজো মন্ডপগুলি। এক একটা পূজোর বাজেট থাকে লাখ লাখ টাকা। অন্যদিকে বাজেটের কথা মাথায় রেখে অনেকেই থিম পূজো করে উঠতে পারেন না। সেই নিয়েই নিজের বক্তব্য পেশ করলেন তৃণমূলের আইনজীবী সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, “দুর্গাপুজো সব স্তরের, সব ধরনের মানুষের উৎসব। এটা ক্লাবগুলো পরিচালনা করে। অনেক ক্লাব টাকার অভাবে ভালো করে করতে পারে না। তাদের সাহায্য করলে অন্যায়টা কি আছে। আমি মনে করি এতে কোনও অন্যায় নেই।”

আরও পড়ুন:’খালি হাতে নয়, এবারে কাঁচা বাঁশ নিয়ে যাবো’, পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি দিলীপের

রবিবার দুর্গাপুজো(Durga Puja) উপলক্ষে শ্রীরামপুরের মাহেশ থেকে গান্ধী ময়দান পর্যন্ত একটি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই বিরোধীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন, পুজোয় সাহায্য করলে অন্যায়ের কিছুই নেই। পাশাপাশি দুর্গাপুজো নিয়ে জনস্বার্থ মামলা প্রসঙ্গে কল্যাণ বলেন, “এটা সম্পূর্ণভাবে আদালতের বিচারাধীন বিষয়। আমি কিছু বলব না। তবে বিরোধীদের এক দল বলত পশ্চিমবঙ্গে দুর্গাপুজো হয় না। এখন এমনভাবে পুজো হচ্ছে ওদের জ্বালা ধরে গেছে। দিল্লি থেকে উড়ে এসে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে।” বিজেপির পাশাপাশি সিপিএমকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। তিনি আরও বলেন, “আর এক দল দুর্গাপুজো এলে লাল সামিয়ানা টাঙিয়ে মার্কসের বই বিক্রি করে।”

আরও পড়ুন:পাকিস্তান বন্দী করে রেখেছিল ১৯৯১ সাল থেকে, ২৬ বছর পর ভারতে ফিরলেন কুলদীপ

প্রতিবার নিজেই পুজো করেন সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এ বারও তার অন্যথা হবেনা। তিনি নিজেই মা দুর্গার বড় ভক্ত। তাই দুর্গাপুজোকে ঘিরে তার উন্মাদনার মাত্রাও বেশি। গতবছর নবমী পুজো করেছিলেন শ্রীরামপুরের সাংসদ। তাতে দেখা গিয়েছিল, আরতি করার সময় আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছেন সাংসদ। কেঁদে ফেলছেন তিনি। কখনও হাতজোড় করে প্রার্থনা করছেন, কখনও আবার হাত ছড়িয়ে আবেগে ভেসে যাচ্ছেন। তাই দুর্গা মাকে নিজের অত্যন্ত কাছের বলেই মনে করেন তিনি। পুজো কমিটিগুলিকে সরকারি অনুদান দেওয়ার কথা ওঠার পর থেকেই শুরু হয় বিতর্কের। কিন্তু ক্লাবগুলিকে পুজোর অনুদান দেওয়ার মধ্যে কোনও দোষ দেখছেন না তিনি, একথাও স্পষ্টভাবে বিরোধীদের জানিয়ে দিলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close