আন্তর্জাতিক

কান ধরে ওঠ-বোস করলেই হবে মস্তিষ্কের সেরা ব্যায়াম, মত চিকিৎসকদের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: ব্যায়ামের উপকারিতা সম্পর্কে চিকিৎসা বিজ্ঞানে আজ আর কোনো রকম দ্বিমত নেই। নানা ধরণের ব্যায়াম শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সচল রাখতে নিয়মিত অভ্যাস করার বিধান দিয়ে থাকেন ডাক্তাররা। দেহকে সুস্থ সবল রাখতে নিয়মিত ব্যায়ামের কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু তাই বলে কান ধরে ওঠ-বোস? একেবারে প্রাইমারি স্কুলে ফিরে যাওয়া?

চমকে ওঠার মতো হলেও এটাই সত্যি। নিয়মিত কান ধরে ওঠা বসা করলেই হবে মস্তিষ্কের সেরা ব্যায়াম, এমনটাই জানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়ার চিকিৎসকরা। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের রেডিওলজিক্যাল সায়েন্স ডিপার্টমেন্টের বিশেষজ্ঞ ডা: কোয়ি পি জোন্সের গবেষণায় বলা হয়েছে, কান ধরে ওঠ-বোস করা আসলে একধরনের ব্যায়াম। শক্তি শোষণ, হজম এবং দেহের বিভিন্ন অংশে পৌঁছে যায় এই ব্যায়ামের মাধ্যমে।

এই শক্তি মূলত মস্তিষ্ক, চোখ, মুখ, কপাল, কান ইত্যাদি জায়গায় ক্রিয়াশীল হয়। কান ধরা বা সামান্য টানার মাধ্যমে শক্তি পৌঁছে যায় মস্তিষ্কে। শুধু তাই নয়, এই ব্যায়ামের পর ইইজি স্ক্যানের রিপোর্টে দেখা গেছে, মস্তিষ্কের দুই গোলার্ধের এলোমেলো অবস্থা স্বাভাবিক হয়ে যায় নিমেষেই।

কান ধরে ওঠ-বোসের উপকারিতা এখানেই শেষ নয়, জানা গেছে সুপারব্রেন যোগার মাধ্যমে দেহের নীচের দিকের বিভিন্ন অংশেও ছড়িয়ে পড়ে শক্তি। হৃদযন্ত্রে এ শক্তি ক্রিয়াশীল হয়। এর ফলে একদিকে যেমন শান্তি ভাব ছড়ায় দেহে ও মনে, তেমনি বাড়ে বুদ্ধি ও সৃষ্টিশীল মানসিকতাও।

কী ভাবে করবেন এই ব্যায়াম?

১. প্রথমেই কানে কোনো অলংকার থাকলে তা খুলে ফেলতে হবে।

২. মুখ বন্ধ রাখুন। ঠোঁটের সঙ্গে জিভ ছুঁয়ে রাখুন।

৩. এবার ডান হাতে বাঁ কান আর বাঁ হাতে ডান কানের লতি ধরতে হবে। বুড়ো আঙুল থাকবে সামনের দিকে।

৪. নাক দিয়ে ধীরে ধীরে শ্বাস নিতে নিতে এবার বসে পড়তে হবে।

৫. একইভাবে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে দাঁড়াতে হবে।

এই প্রক্রিয়া দিনে অন্তত মিনিট তিনেক করতে পারলেই মস্তিষ্ক হয়ে উঠবে শক্তিশালী।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close