দেশ

‘ঘৃণার রাজনীতি চলছে UP-তে’, লাভ জিহাদ প্রসঙ্গে গর্জে উঠলেন প্রাক্তন IAS অফিসাররা

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: বিবাহের নামে ধর্মান্তর বা লাভ জিহাদ নিয়ে দেশ জুড়ে জারি তরজা।উত্তরপ্রদেশে লাভ জিহাদ ঠেকাতে আনা হয়েছে নতুন ধর্মান্তর বিরোধী আইন (Anti-conversion law)। যথারীতি সেই অনুযায়ী শুরু হয়েছে ধরপাকড়ও।

‘লাভ জিহাদ’ বা ধর্মান্তর বিরোধী এই আইনের জন্য গোটা উত্তর প্রদেশ জুড়ে ঘৃণার আবহ তৈরি হয়েছে, এই অভিযোগেই এবার মুখ খুললেন রাজ্যের প্রাক্তন আইএএস (IAS) অফিসাররা। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে তাঁরা এই নতুন আইনের বিরুদ্ধে একটি চিঠি দিয়েছেন। ওই চিঠিতে মোট ১০৪ জন প্রাক্তন আইএএস অফিসারের স্বাক্ষর রয়েছে বলে জানা গেছে সূত্রের খবরে।

কী বলা হয়েছে ওই চিঠিতে? সর্বভারতীয় সংবাদসংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে দেওয়া চিঠিতে লেখা হয়েছে, “উত্তরপ্রদেশ এক সময় গঙ্গা-যমুনার মিলনস্থল হিসেবে পরিচিত ছিল, এখন তা ঘৃণা, বিচ্ছিন্নতা আর মৌলবাদের রাজনীতির আখড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে। সরকারি প্রতিষ্ঠান গুলি এখন সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষ হয়ে উঠেছে।”

পাশাপাশি, রাজ্য জুড়ে কিভাবে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে চিহ্নিত ও অপদস্থ করা হচ্ছে সে বিষয়েও চিঠিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্বাক্ষরকারীরা। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে চিঠিতে লেখা হয়েছে,”এই ধর্মান্তর বিরোধী আইনকে আদতে ভারতীয় মুসলিম যুবকদের বিরুদ্ধে একটি শাস্তির মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে মেয়েদের স্বাধীনতাতেও হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।”

উল্লেখ্য, এলাহাবাদ সহ একাধিক হাইকোর্ট যখন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে যে জীবনসঙ্গী বেছে নেওয়া সংবিধান অনুযায়ী যে কোনো ভারতীয়ের মৌলিক অধিকার, সেখানে উত্তর প্রদেশ সরকার নতুন আইনের মাধ্যমে সংবিধান লঙ্ঘন করছে, অভিযোগ করেছেন প্রাক্তন আইএএস কর্মীরা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close