দেশ

ছাড়বেন না লড়াইয়ের ময়দান, ভিডিও কলেই মেয়ের বিয়ে দেখলেন আন্দোলনরত কৃষক

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি আইনের বিরুদ্ধে কৃষকদের আন্দোলন নিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি। পাঞ্জাব হরিয়ানা সহ বিভিন্ন রাজ্য থেকে অসংখ্য কৃষক নিজেদের দাবি আদায়ের জন্য পারি দিয়েছেন দিল্লির উদ্দেশ্যে। সরকারের কাছে নিজেদের দাবি আদায়ের এই লড়াইয়ে জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ সময় বয়ে যাচ্ছে চাষীদের। কিন্তু আপাতত ব্যক্তিগত জীবনে যে আদেও ভ্রুক্ষেপ নেই তাঁদের, তেমনটাই স্পষ্ট হল উত্তর প্রদেশের এক চাষীর কথায়।

উত্তর প্রদেশের আমরোহা থেকে কৃষক আন্দোলনে যোগ দিতে এসেছেন সুভাষ চিমা।কৃষি আইনের বিরোধিতায় যোগ দিতে গিয়ে নিজের মেয়ের বিয়েতেই থাকতে পারলেন না তিনি। ১১১ কিলোমিটার দূর থেকে ভিডিও কলের মাধ্যমে নব দম্পতিকে আশীর্বাদ করেছেনঃ আন্দোলনরত কৃষক সুভাষ চিমা।

মেয়ের বিয়ের আগে একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ” আমি সারাজীবন ধরে চাষ করি, আজ আমার যা কিছু আছে সব তা থেকেই পেয়েছি। সেই কারণেই আমি ‘দিল্লি চলো’ ডাকে চুপ করে থাকতে পারি নি। বৃহস্পতিবার আমার মেয়ের বিয়ে, তাও।” ৫৮ বছরের সুভাষ চিমা আরো বলেন, “আমি গ্রামে সমস্ত ব্যবস্থা করে এসেছি। আমার ছেলেরা সব দেখাশোনা করবে। ফোনেও রোজ কথা বলি আমি মেয়ের সঙ্গে। ও আমায় বারবার বাড়ি যেতে বলছে। কিন্তু আমি আমার চাষী ভাইদের এই অবস্থায় ছেড়ে যেতে পারব না, আমাদের ভবিষ্যৎ নির্ভর করে আছে এর উপর।”

সুভাষ চিমা ‘ভারতীয় কিষান ইউনিয়ন’ (BKU)-এর সদস্য। তিনি তাঁর ছেলেদের সঙ্গে কথা বলে ভিডিও কলের মাধ্যমে মেয়ের বিয়েতে ভার্চুয়ালি উপস্থিত থাকার ব্যবস্থা করেছিলেন। বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে সেই বিয়ের অনুষ্ঠান।

অন্যান্য আন্দোলনরত কৃষকরাও তাঁকে বাড়ি ফিরে যেতে বলেছেন বলে জানিয়েছেন সুভাষ চিমা। সজ্জন সিং নামে জনৈক কৃষক জানান, “ও এখানে উপস্থিত থেকে লড়াই চালিয়ে যাওয়াকে নিজের কর্তব্য মনে করে। ও মনে করে ও এখান থেকে চলে গেলে অন্যদের জন্য খারাপ দৃষ্টান্ত তৈরি হবে।” এমনকি মাত্র কয়েক ঘন্টার জন্য বাড়ি যেতেও তিনি রাজি হন নি বলে জানিয়েছেন সজ্জন সিং।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close