মহানগরআম আদমি

রূপান্তরকামীদের লড়াই পুজোর থিম, মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদলে প্রতিমা কলকাতার মণ্ডপে

নিজস্ব প্রতিবেদন: রূপ নয় রূপ-অন্তর। এবার ভিন্ন পুজোর আমেজ নিয়ে এমনই থিমে উপস্থিত হয়েছে কাঁকুড়গাছি যুবকবৃন্দ। রূপের অন্তর অর্থাৎ সমাজের আর সকলের মতো আর এক অন্যতম অংশ রূপান্তররাই এবারের বিষয় হয়উঠেছে এই পুজো প্যান্ডেলে। যেখানে মাতৃপ্রতিমায় রয়েছে মৌলিকত্ব, অভিনবত্ব। অধ্যাপক ড. মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদলে প্রতিমা নির্মিত হয়েছে এই পুজো মণ্ডপে। জীবন্ত এক নারীর অন্দরে দেবীর রূপ দেখতে এখন থেকে ভিড় জমছে ওই ক্লাবে।

প্রসঙ্গত, মানবী দেবী এই মুহূর্তে একটি কলেজের অধ্যক্ষ। তিনি দেশের প্রথম রূপান্তরিত নারী হিসেবে কৃষ্ণনগর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বাংলা সাহিত্যের অধ্যাপক হিসেবে ঝাড়গ্রাম থেকে শুরু করে রাজ্যের একাধিক কলেজে অধ্যাপনাও করেন তিনি। মানবী বর্তমানে, এ রাজ্যে রুপান্তরিতদের জন্য গঠিত বোর্ডের প্রধানও। একাধিক প্রতিকূলতা আর টানাপড়েনের লড়াই শেষে তিনিই প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন মানসিক সত্তা। মানবিকতার আবহে নিজেকে, নিজের মনকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন সোমনাথ। আজ তিনি অনন্যা, তিনি মৌলিক। প্রতি মুহূর্তে মানবী-কণ্ঠে উদ্ভাসিত হয় লড়াইয়ের কথা, দুঃসহ স্মৃতির কথা। সম্প্রতি, বাবাকে হারিয়েছেন নৈহাটি ঋষি বঙ্কিচন্দ্র কলেজের প্রাক্তন এই ছাত্রী। এবার পুজোর আবহে মানবী-মূর্তি ফের নজর কেড়েছে রাজ্যের। সত্তা আর সততার মিশেলে সমাজের সকলের একযোগের পথ প্রকাশিত হয়েছে ওই পুজো মণ্ডপে।

যার সৃজনে ছিলেন শিল্পী সোমনাথ মুখোপাধ্যায়। আর মাতৃরূপে ছিলেন পরিমল পাল। যদিও কাঁকুড়গাছি যুবকবৃন্দের পুজোর প্রধান পৃষ্ঠপোষক তৃণমূল বিধায়ক পরেশ পাল।

ছবি: মানবী বন্দোপাধ্যায় ফেসবুক

এই বিষয়ে কী বলছেন মানবী নিজে? তিনি লিখেছেন, ‘আমি কখনও ভেবেছিলাম বেঁচে থাকতেই আমি দেবী পদমর্যাদা পাব? ভেঙে পড়ার সেই দিনগুলোতে যদি আত্মহননের পথ বেছে নিতেম দেখতে পেতেম কি এই দিনগুলো? আমার আদলে তৈরি হচ্ছে ধ্যান মগ্ন মা দুর্গা!
মানবীর মধ্যে খুঁজে পাওয়া দেবী! মানুষই দেবতা গড়ে! আমি সিংহবাহিনী হয়ে উঠতে চাই! আমি আশান্বিত এক দিন সবাই বুঝবে! এই দুর্গাদের পূজা হবে ঘরে ঘরে!’

অভিনব ভাবনার এই পুজো নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে আলোচনা। অনেকেই বলছেন, সমসাময়িক সামাজিক প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে এই ভাবনা, এই থিম ভীষণ জরুরি, আর মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো নিজের জীবনে দুর্গাসম নারীর প্রতিমূর্তি তৈরি আসলে এই সমাজের একটা অংশের রূপান্তর-বিচ্ছেদের মুখে সপাটে থাপ্পড়ও বটে!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close