দেশহেলথ

অন্তঃস্বত্বা অবস্থাতেই লড়ছিলেন মানুষের জন্য, করোনায় মারা গেলেন ‘কোভিড যোদ্ধা’ ডাক্তার

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: কোভিড আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা মহারাষ্ট্রের চিকিৎসক। করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্য মহারাষ্ট্র। আর এখানেই অমরাবতী জেলায় আইরিন সরকারি হাসপাতালের প্যাথলজি বিভাগের চিকিৎসক গায়ত্রী ওয়াদেকর গাওয়াই। ৩২ বছরের গায়ত্রী অন্তঃসত্ত্বা। তবে তিনি এই কঠিন সময়েও মানুষের সেবা করাই নিজের ধর্ম বলে মনে করেছিলেন। মাতৃত্বকালীন ছুটি পেয়েও তিনি তা বাতিল করে তাঁর ও সন্তানের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় রত ছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা আর করতে পারলেন না। করোনাতেই মৃত্যু হল গায়ত্রীর।

১৫ দিন আগে জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও গলা ব্যাথা সহ করোনার বেশ কিছু উপসর্গ দেখা যায় তাঁর। প্রথমে তাঁকে আইরিন সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। মাত্র দু’‌দিনের মধ্যেই গায়ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। এরপর গায়ত্রীকে নাগপুরের সরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানে দিন দশেক ভেন্টিলেশনে ছিলেন তিনি। রবিবার হাসপাতালেই মৃত্যু হয় চিকিৎসক গায়ত্রী ওয়াদেকার।

করোনা মোকাবিলার যুদ্ধে একদম সামনের সারির যোদ্ধা ছিলেন চিকিৎসক গায়ত্রী। মাতৃত্বকালীন ছুটি পেয়েও তিনি নেননি। উপরন্তু সামিল হয়েছিলেন কোভিড যুদ্ধে। আইএমএ সহ দেশের বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান এই অকাল মৃত্যুতে শোকাহত। প্রসঙ্গত, হু–এর এক রিপোর্টে জানা গিয়েছে ভারতে সবচেয়ে বেশি স্বাস্ত্যকর্মীদের মৃত্যু হচ্ছে অথচ কেন্দ্রের কাছে তার কোনও তথ্যই নেই। সরকারকে আরও দায়িত্বশীল হতে হবে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close