দেশরাজ্য

শিখের পাগড়ি খুলছে বাংলার পুলিশ, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ‘নালিশ’ করলেন হরভজন সিং

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ প্রশাসন শিখ ধর্মকে অসম্মান করেছেন, খুলে নিয়েছেন শিখের পাগড়ি, যা দেখে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করলেন হরভজন সিং। ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন স্পিনার এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে একটি ট্যুইট করেন। তাঁর সেই ট্যুইটে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উল্লেখও করেছেন। গতকাল কলকাতায় বিজেপির নবান্ন অভিযানে পুলিশি প্রতিরোধের একটি ছবি দেখেই এমন মন্তব্য করেছেন হরভজন সিং।

বস্তুত, গতকাল রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার নেতৃত্বে আয়োজিত নবান্ন অভিযানে শহরজুড়ে চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। হাওড়া ময়দানের কাছে এক বিজেপি কর্মীর কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি করে পুলিশ। এ নিয়ে চাপানউতোর চলছিল দিনভর। কিন্তু এবার হরভজন সিং-এর ট্যুইটে সেই ঘটনায় আলাদা মাত্রা যোগ হল। জানা গেছে, ওই যুবক শিখ ধর্মাবলম্বী। তাঁর নাম বলবিন্দর সিং। তিনি পাঞ্জাবের বাসিন্দা।ব্যারাকপুরের বিজেপি নেতা প্রিয়াঙ্গুর সিংয়ের দেহরক্ষী তিনি।

https://twitter.com/harbhajan_singh/status/1314527066944020483?s=19

গতকালই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায় এই যুবকের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি হচ্ছে। এবং সেই সময়ে তাঁর মাথায় বাঁধা পাগড়ি খুলে যাচ্ছে। এই নিয়েই শিখ সমাজে আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। পুলিশের আচরণের প্রতিবাদ করেছেন হরভজন সিং।একটি ট্যুইটকে রিট্যুইট করে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে উল্লেখ করে লিখেছেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এটা কিন্তু ঠিক নয়। বিষয়টি দেখুন।” এরপর নিজের অনুভূতি বোঝাতে বেশ কয়েকটি রাগের ইমোজিও দিয়েছেন তিনি।

রাজ্য সরকারের তরফে এ ঘটনা সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করা হয়নি। গতকালের ওই আগ্নেয়াস্ত্র বিতর্কে বিজেপির তরফে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন ওই বন্দুকের লাইসেন্স রয়েছে। পরে হাওড়া সিটি পুলিশ বলে, লাইসেন্স জম্মু ও কাশ্মীরের রাজৌরি সেক্টরের। নিয়মানুযায়ী ওই জেলার বাইরে আসার কথা নয়।

কিন্তু অপরাধ যাই হোক না কেন, কোনও নির্দিষ্ট ধর্মকে অসম্মান করা যে উচিৎ নয়, ট্যুইটে সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছেন ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম জনপ্রিয় প্রাক্তন স্পিনার হরভজন সিং। আর তাই তিনি এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close