মহানগর

BREAKING: হাইকোর্টের রায় বদল! মন্ডপে ঢোকা নিয়ে বড়ো ঘোষণা আদালতের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: দর্শক শূন্য পুজো মন্ডপের রায়ে সামান্য বদল করা হল। বুধবার পুনর্বিবেচিত রায়ে হাইকোর্ট জানাল, নো এন্ট্রি জোন তথা প্যান্ডেলের মধ্যে ঢাকিরা থাকতে পারবেন। তা ছাড়া বড় পুজোগুলোর মণ্ডপে কমিটির ৬০ জন সদস্য থাকতে পারবেন। একসঙ্গে সর্বোচ্চ ৪৫ জন মণ্ডপে ঢুকতে পারবেন।

হাইকোর্টের দর্শক শূন্য পুজো মন্ডপের রায়ে সামান্য বদল করা হল। বুধবার পুনর্বিবেচিত রায়ে হাইকোর্ট জানাল, নো এন্ট্রি জোন তথা প্যান্ডেলের মধ্যে ঢাকিরা ছাড়াও থাকতে পারবেন ক্লাবের সদস্য ও স্থানীয়রা। বড় পুজোগুলোর মণ্ডপে কমিটির ৬০ জন সদস্য থাকতে পারবেন। একসঙ্গে সর্বোচ্চ ৪৫ জন মণ্ডপে ঢুকতে পারবেন বলে জানিয়েছে হাইকোর্ট।

গতকাল পুজো নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ যে রায় দিয়েছিল, বুধবার কার্যত তা একই থাকলেও সামান্য বদল হল নিয়ম বিধিতে। উচ্চ আদালতের বেঞ্চ জানাল, ‘বড় পুজোয় প্রবেশের জন্য ৬০ জনের তালিকা বানাতে হবে। ৬০ জনের তালিকা হলেও একসঙ্গে থাকতে পারবেন সর্বোচ্চ ৪৫ জন। ৩০০ বর্গ মিটার পরিসরের পুজো গুলিকেই বড় পুজো হিসেবে বিবেচনা করা হবে। তার চেয়ে কম অর্থাৎ ছোটো পুজোর ক্ষেত্রে বানাতে হবে ১৫ জনের তালিকা। একসঙ্গে মন্ডপে উপস্থিত থাকতে পারবেন সর্বাধিক ১০ জন।তবে উদ্যোক্তা ও স্থানীয়দের নামের তালিকা রোজ আপডেট করা যাবে বলেও জানিয়েছে আদালত।

বুধবার হাইকোর্টের এই পুনর্বিবেচিত রায় অনুযায়ী দর্শক শূন্য পুজো মন্ডপের নির্দেশই কার্যত বহাল রইল। মন্ডপে সিঁদুর খেলার অনুমতিও দেওয়া হয় নি। আদালত আরও বলেছে, ‘নো এন্ট্রি জোনে থাকতে পারবেন ঢাকিরা। তবে সবই করতে হবে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে।’

গতকালই করোনা আবহে রাজ্যে দুর্গাপুজোর আয়োজনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়ের করা জনস্বার্থ মামলার রায় ঘোষিত হয়। বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ রায়ে জানিয়েছিল, রাজ্যের ছোট বড় সমস্ত পুজো মন্ডপ এবছর থাকবে দর্শক শূন্য। সবকটি মন্ডপই হবে কনটেনমেন্ট জোন। নো এন্ট্রি লেখা ব্যারিকেড থাকবে প্রতিটি মন্ডপের সামনে। এই রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে গতকাল হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। জরুরি ভিত্তিতে শুনানির আবেদন করে পুজো উদ্যোক্তাদের ফোরাম।

 

 

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also
Close
Back to top button
Close
Close