সীমান্তআন্তর্জাতিক

ভারত-চিনের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে’, ভারতীয় সেনার রক্তক্ষয় নিয়ে সুর নরম বেজিংয়ের

বেজিং: ভারত-চিন সম্পর্কের এক ‘অভিশপ্ত অধ্যায়’ ইতিমধ্যেই গত জুনে জনসমক্ষে এসেছে। এই হিংসাত্মক পরিস্থিতিকে এদিন ‘ইতিহাসের দুর্ভাগ্যজনক এবং সংক্ষিপ্ত অধ্যায়’ বলে অভিহিত করলেন চিনা রাষ্ট্রদূত সুন ওয়েইডং। এদিন তিনি এক বিবৃতিতে জানান, “কিছুদিন আগেই সীমান্তে যে দুর্ভাগ্যজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিলো তা হয়তো ভারত-চিন কেউই চায়নি। এটি ইতিহাসের নিরিখে সংক্ষিপ্ত অধ্যায় ছাড়া কিছু নয়।”

প্রসঙ্গত, লাদাখ-চীন সীমান্তের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সৈনিকরা নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করে ভারতের মধ্যে প্রবেশ করলে ভারতীয় জওয়ানদের সাথে একটি সংঘর্ষ হয়। যার ফলে বিহার রেজিমেন্টের এক কম্যানডিং অফিসার সহ ২০ জন ভারতীয় সেনা প্রাণ হারান। এই বিষয়ে চিনা রাষ্ট্রদূত এদিন দিল্লিতে যুব ফোরামের একটি অনুষ্ঠানে বললেন, “এই একুশ শতকে প্রতিবেশী দুটি দেশের সম্পর্ক কখনো পিছু হটতে পারেনা। আগামী দিনে এই সম্পর্ক আরও মজবুত এবং সুদৃঢ় হবে।”

এই বিষয়ে তিনি আরও বলেন, ‘‘বর্তমান পরিস্থিতির নিরিখে প্রতিবেশী এই দু’টি দেশের মধ্যে এখন বন্ধুত্বপূর্ণ সহযোগিতাই অত্যন্ত জরুরি। স্বাভাবিকতা প্রদান করাই আমাদের এখন মূল লক্ষ্য। এই লক্ষ্য থাকলে এবং যুক্তি দিয়ে সব কিছু বিচার করলেই দু’দেশের মধ্যে সব সমস্যাই মিটে যাবে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, দু’টি দেশের দু’টি প্রাচীন সভ্যতাই এটা চাইছে। আর সেটা বাস্তবায়িত করার ব্যাপারে দু’টি দেশই সক্ষম। আগামী দিনে ভারত ও চিনের সম্পর্ক আরও মজবুত হয়ে উঠবে।’’

এই অতিমারী এবং বিশ্ব পরিস্থিতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি জানান, “একটি পুরোনো চিনা প্রবাদ অনুযায়ী সমস্যার চেয়েও সমাধানের ভিন্ন ভিন্ন রাস্তা রয়েছে এবং তা অনেক মসৃণ। ভারত ও চিনের নাগরিকদের দীর্ঘ ২ হাজার বছরের সম্পর্ক সেই অতিমারি আর গালওয়ান উপত্যকার সাম্প্রতিক উত্তেজনায় কখনোই তা নষ্ট হয়ে যেতে পারেনা।”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close