রাজনীতিদেশ

‘ভারত কেবল হিন্দুদের নয়, মুসলমানদেরও নয়’, সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে সরব অমর্ত্য সেন

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ দেশের আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক অবস্থা নিয়ে সবসময়েই সরব থাকেন নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। স্বাধীন মতপ্রকাশের ফলে বহুবার দিল্লীর শাসক দলের নেতাদের রোষের মুখেও পড়তে হয়েছে তাঁকে। তবুও যুক্তি তর্কের বাঁধুনিতে নিজের অবস্থানে অনড় থাকেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ। এবার ফের তাঁর মন্তব্যে চর্চা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

একটি সংবাদ মাধ্যমের অনুষ্ঠানে ভিডিও বার্তায় বর্ষীয়ান অমর্ত্য বাবু বলেন “ভারতীয়দের মধ্যে বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা হচ্ছে। এদেশের হিন্দু ও মুসলমানের সহাবস্থানে ফাটল ধরানো হচ্ছে রাজনৈতিক সুবিধার জন্য।” দেশের স্বাধীনভাবে মানুষে মনন চর্চার পরিবেশ খর্বিত হচ্ছে বলেও আক্ষেপ শোনা যায় তাঁর বার্তায়। এই ভিডিও বার্তায় তিনি আরো বলেন “স্বাধীনতার আগে দেখতাম মানুষকে দমিয়ে রাখতে নিরপরাধ লোকদেরও জেলে ভরে রাখা হত। তখন আমি তরুণ। এরপর দেশ স্বাধীন হল। কিন্তু বিনা অপরাধে কারাবন্দি করার ঘটনা আজও ঘটে চলেছে।”

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার সল্টলেকে প্রতিচী ট্রাস্টের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন বলেন “ভারত কেবল হিন্দুদের দেশ নয়, আবার কেবল মুসলিমদের দেশও নয়; সবাইকে একসঙ্গে একযোগে কাজ করতে হবে এখানে।” পাশাপাশি তিনি বলেন “আমি চাই দেশ ঐক্যবদ্ধ থাকুক। এই দেশ ঐতিহাসিকভাবেই উদার। এখানে কোনো বিভাজন চাইনা।”

দীর্ঘ দুইবছর পরে অমর্ত্য বাবু এসেছেন শান্তিনিকেতনে তাঁর পৈত্রিক বাড়িতে। রবিবারই লন্ডনে ফেরার কথা ছিলো তাঁর। কিন্তু এরই মধ্যে তিনি কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন, ফলে আপাতত কোয়ারেন্টাইনে শান্তিনিকেতনে নিজের বাড়িতেই রয়েছেন তিনি। প্রতিবারের মতো এইবারেও তিনি দেশের সাম্প্রতিক বিভাজনের পরিস্থিতি ও বিনা বিচারে আটকের ঘটনায় নিজের ক্ষোভ ব্যক্ত করেছেন। অতীতেও এইসব বিষয়ে মন্তব্য করার জন্য বিজেপি নেতাদের আক্রমণের মুখে পড়তে হয় অমর্ত্য বাবুকে। কিন্তু তাঁকে চুপ করানো যায়নি। কোয়ারেন্টাইনে থেকেই দেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে আবারও সরব হলেন নোবেলজয়ী এই বর্ষীয়ান অর্থনীতিবিদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close