আন্তর্জাতিক

চীনের মোকাবিলায় আসছে স্প্রুট এসডি,রাশিয়ান যুদ্ধ ট্যাঙ্ক কেনার পরিকল্পনা ভারতের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: লাদাখ সীমান্তে চীনা আগ্রাসন ঠেকাতে এবার রাশিয়ান যুদ্ধ ট্যাঙ্ক ব্যবহারের কথা ভাবছে ভারত। ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা সংস্থা ডিআরডিও-র তরফ থেকে জানা গেছে চীনের যুদ্ধ ট্যাঙ্কের মোকাবিলা করার জন্য তাঁরা রাশিয়ার স্প্রুট এসডি ট্যাঙ্ক বসানোর ভাবনা চিন্তা করছেন। রাশিয়ার কাছ থেকে এই ট্যাঙ্ক কেনার প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

লাদাখের পূর্ব সীমান্তে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীন তাদের ভিটি-৪ নামক যুদ্ধ ট্যাঙ্ক বসিয়েছে। তার প্রত্যুত্তরে ভারতও চুপ করে থাকে নি। চীনের ওই ট্যাঙ্কের মোকাবিলায় ভারত সেখানে বসিয়েছে টি-৯০ ভীষ্ম এবং টি-৭২ নামক দুই যুদ্ধ ট্যাঙ্ক। তবে এগুলি ছাড়াও এবার রাশিয়ার হালকা ওজনের আক্রমণাত্মক যুদ্ধ ট্যাঙ্কের প্রতি আকৃষ্ট হয়েছে ভারত।

সীমান্তে চীনের এমবিটি-৩০০০ ট্যাঙ্কের মোকাবিলা করার জন্য রাশিয়ায় তৈরি স্প্রুট এসডি ট্যাঙ্ক যে আদর্শ হবে, সেকথা জানিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা সংস্থা। এই রাশিয়ান স্প্রুট এসডিএম১ যুদ্ধ ট্যাঙ্ক পূর্ব লাদাখের উঁচু পাহাড়ি এলাকায় যথার্থ কার্যকরী হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই এলাকায় ভারতের মোতায়েন করা বর্তমান ট্যাঙ্ক গুলি অর্থাৎ টি-৯০ ভীষ্ম ও টি-৭২ এর ওজন অনেকটাই বেশি। হালকা যুদ্ধ ট্যাঙ্ক এই মুহূর্তে ভারতের কাছে নেই। তাই রাশিয়ার হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক কেনার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

রাশিয়ার এই স্প্রুট এসডিএম১ ট্যাঙ্ক ভারতে এলে চীনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে দেশের শক্তি আরো বৃদ্ধি পাবে বলেই মনে করছে প্রতিরক্ষা মহল। এই ধরণের যুদ্ধ ট্যাঙ্কে ১২৫ এমএম বন্দুক ফিট করা আছে। ফলে যে কোনো শক্তিশালী যুদ্ধ ট্যাঙ্ক ধ্বংস করার ক্ষমতা আছে এতে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, লাদাখ সীমান্তে চীনের সেনা মোতায়েন এখনও অব্যাহত। উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়েছে লাদাখ সীমান্ত অঞ্চলে চীনের বিপুল সংখ্যক সেনা মোতায়েনের ছবি।নানা ধরণের শক্তিশালী ঘাতক যুদ্ধ ট্যাঙ্ক যে লাল ফৌজের হাতে রয়েছে তা বলাই বাহুল্য। এমতাবস্থায় তাদের মোকাবিলায় রাশিয়ান ট্যাঙ্কের প্রয়োজনীয়তা ক্রমেই বাড়ছে। এ বিষয়ে অবিলম্বে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে, মনে করা হচ্ছে তেমনটাই।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close