আন্তর্জাতিকদেশ

খিদের জ্বালায় জ্বলছে ভারত, বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে পাকিস্তানেরও পিছনে আমাদের দেশ

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ ফের একবার বিশ্বের দরবারে মুখ পুড়ল ভারতের। বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে পাকিস্তান, এমনকি বাংলাদেশেরও পিছনে উঠল ভারতের নাম। করোনা পরিস্থিতিতে ক্ষুধার্ত দেশবাসীর সংখ্যা এক ধাক্কায় কতটা বেড়ে গেছে এই সমীক্ষার ফলাফলই তার প্রমাণ।

 

গত শুক্রবার প্রকাশিত হয়েছে ২০২০ সালের বিশ্ব ক্ষুধা সূচক। জানা গেছে, চলতি বছরের এই ক্ষুধা সূচকে মোট ১০৭ টি দেশের মধ্যে ৯৪ তম স্থানে রয়েছে ভারতের নাম। ভারতের এই অবস্থান পাকিস্তান এবং বাংলাদেশেরও পরে, যা নিঃসন্দেহে উদ্বেগের সৃষ্টি করেছে বিশেষজ্ঞ মহলে।

 

শুক্রবার সন্ধ্যায় আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিন থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষুধা সূচকের এই রিপোর্ট প্রকাশ করে ইন্টারন্যাশানাল ফুড পলিশি রিসার্ট ইন্সটিটিউট। এতে ১০০ পূর্ণ মানের ভিত্তিতে প্রতিটি দেশকে নম্বর দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে বেশি নম্বর পাওয়ার অর্থ হল দেশটি ক্ষুধা নিবারণে ভালো জায়গায় নেই। এই পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশের নম্বর ২০.৪. ভারতের নম্বর ২৭.২। ভারতের আগে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া নেপালও। অন্য দিকে আফগানিস্তান, রাওয়ান্ডার মতো দেশগুলির অবস্থা ভারতের কাছাকাছি।

 

যদিও এই রিপোর্ট অনুযায়ী ক্ষুধা নিবারণে সামগ্রিক ভাবে বিশ্বের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো। কিন্তু ৩১টি দেশের অবস্থা বিশেষ ভাবে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের কপালে। নতুন করে এই শোচনীয় তালিকায় নাম লিখিয়েছে ন’টি দেশ। রিপোর্টটি নাম করেই বলছে, ভারত নেপাল এবং পাকিস্তানের মতো দেশ গুলিতে, অপুষ্টি,দারিদ্র, অশিক্ষাই এই অবস্থার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছর ২০১৯ সালেও এই সূচকে ভারতের অবস্থান ভালো ছিল না। ক্ষুধার তীব্রতায় নজির গড়েছিল যে সব দেশ ভারত তাদের মধ্যে ছিল অন্যতম। গোটা দক্ষিণ এশিয়ায় ভারতের অবস্থান সবচেয়ে খারাপ। সেবার ১১৭টি দেশের মধ্যে ভারতের ঠাঁই হয় ১০২ তম স্থানে। রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফ থেকে জানানো হয়, ভারতের প্রায় অর্ধেক শিশুই অপুষ্টির শিকার। চলতি বছরেও অবস্থার কোনও উন্নতি করতে পারে নি ভারত।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close