দেশরাজনীতি

সংসদের বাইরে চায়ে আড্ডায় ধর্ণা ডেরেকদের,সাক্ষাৎ করতে এলেন জয়া বচ্চন নিজে

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: আট বরখাস্ত সাংসদকে চায়ের প্রস্তাব ডেপুটি চেয়ারম্যানের, রাজ্যসভা বয়কট বিরোধীদের। গত রবিবার কৃষিবিল নিয়ে উত্তাল সংসদে বরখাস্ত আট সাংসদ সোমবার রাতভর সংসদ চত্ত্বরেই ধর্নায় বসেছিলেন। মঙ্গলবার ভোরে সেই আট সাংসদকে চা খাওয়ার প্রস্তাব দেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ। তবে তাঁর ‘চা রাজনীতি কৃষক বিরোধী’ বলে দাবি করে সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন ডেরেক ও’ব্রায়েন, দোলা সেন-সহ অন্যান্য সাংসদরা। সেই ঘটনায় ডেপুটি চেয়ারম্যানের পাশে এসে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

মঙ্গলবার নরেন্দ্র মোদী ট্যুইট করে লেখেন, ‘‌দু’‌দিন আগেই যাঁরা তাঁর ওপর আক্রমণ করেছিলেন ও তাঁকে অপমান করেছিলেন, ধর্নায় বসা সেইসব সাংসদদের ব্যক্তিগতভাবে চা পরিবেশন করার অর্থ হল, শ্রী হরিবংশ জি দয়ালু ও বিরাট মনের অধিকারী। এতে তাঁর মহত্ব প্রকাশ পায়। হরিবংশ জি-কে অভিনন্দন করার ক্ষেত্রে সারা দেশের মানুষের সঙ্গে আমিও যোগ দিলাম।’‌ যদিও চায়ের প্রস্তাব দেওয়া শুধুমাত্র সংবাদমাধ্যমকে দেখানোর জন্য বলে মন্তব্য করেন ডেরেক ও’‌ব্রায়েন। আসলে শ্রী হরিবংশের সঙ্গে সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরাও সেখানে এসেছিলেন।

কৃষিবিল নিয়ে রাজ্যসভায় তুমুল বিক্ষোভ দেখানোয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া ৮ সাংসদ সোমবার রাত কাটান সংসদ ভবন প্রাঙ্গণের বাগানে। বালিশ, কম্বল, দুটো পাখা ও মশার ওষুধ নিয়ে সেখানেই রাত্রিবাস করেন তাঁরা।
তবে ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ জানিয়েছেন যে প্রতিবাদকারী সংসদ সদস্যদের নিরবচ্ছিন্ন আচরণের প্রতিবাদে তিনি একদিনের জন্য অনশন পালন করবেন। অন্যদিকে সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশি বলেন, ‘‌বরখাস্ত সংসদ সদস্যদেরকে সংসদ থেকে দূরে রাখার বিষয়ে সরকার নরকের মতো আচরণ করছে না।’‌ যোশি আরও বলেন, ‘‌তারা যদি দুঃখ প্রকাশ করে তবে সরকার তা খতিয়ে দেখবে।’‌ অপরদিকে, নিজেদের অবস্থান থেকে একটুও না সরে চাপ আরও বাড়িয়েছে বিরোধীরা। তিনটি দাবি পুরণ না-করা পর্যন্ত তাঁরা রাজ্যসভার অধিবেশন বয়কট করছেন বলে জানিয়েছেন মঙ্গলবার রাজ্যসভায় কংগ্রেস সাংসদ গুলাম নবি আজাদ জানান।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close