দেশ

অপূর্ব! মরশুমের প্রথম তুষারপাত, পুরু বরফের চাদরে ঢেকে গেল মোহময়ী কাশ্মীর

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: ডিসেম্বরের মাঝামাঝি এসে জাঁকিয়ে শীত পড়তে শুরু করেছে রাজ্যে। সকালের ঘন কুয়াশা জানান দিচ্ছে লেপ কাঁথা কম্বলে মোড়া ঠান্ডার মরশুম হাজির। এর মাঝেই মরশুমের প্রথম তুষারপাতের সাক্ষী থাকল কাশ্মীর।

করোনা ভাইরাসের অতিমারীর আবহে ক্লান্ত বছরের শেষে বরফে ঢাকা কাশ্মীরের অপরূপ শোভা নজর কাড়ছে সকলেরই। জানা গেছে, দক্ষিণ কাশ্মীর এবং উত্তরের কিছু অংশে এদিন তুষারপাতের ফলে ঢাকা পড়ে যায় গোটা এলাকা। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, পশ্চিমি ঝঞ্ঝার কারণে আগামী কয়েকদিনে লাদাখ ও কাশ্মীরের বেশ কিছু অঞ্চলে আরো বৃষ্টি এবং তুষারপাত হতে পারে।

করোনা আবহে বছরের শুরুর দিকে অন্যান্য জায়গার মতো জম্মু কাশ্মীরের দরজাও বন্ধ হয়ে গিয়েছিল পর্যটকদের জন্য। তারপর দীর্ঘ লকডাউনের পর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও অতিমারীর কারণে কাশ্মীরে পর্যটকদের সংখ্যা বেশি ছিল না বলেই জানা গেছে সূত্রের খবরে। তবে শীত পড়তেই গত মাস থেকে ফের পর্যটকদের আনাগোনা শুরু হয়েছে ভূস্বর্গে। জম্মু কাশ্মীরের পর্যবেক্ষক মহলের মতে, অতিমারী পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক পর্যটন ক্ষেত্রগুলি এখন হাতের বাইরে থাকায় জম্মু কাশ্মীরে আসছেন বহু মানুষ। ক্রিসমাস ও নিউ ইয়ার পালনের জন্য এখন পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ বরফে ঢাকা কাশ্মীর।

জানা গেছে, গুলমার্গে সবচেয়ে বেশি বরফ পড়েছে। প্রায় চার ফুটের বেশি পুরু বরফের চাদরে ঢাকা পড়েছে গুলমার্গের বেশ কিছু অংশ। স্থানীয় পর্যটন বিভাগের তরফে ইতিমধ্যে গুলমার্গে বরফের নানা রকম খেলা শুরু করে দেওয়া হয়েছে। মূলত পর্যটক টানতেই এই পন্থা অবলম্বন করেছেন তারা।

বরফের জন্য ইতিমধ্যে শ্রীনগর-জম্মু, শ্রীনগর-লেহ সহ বেশ কিছু বড় রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে। হাসপাতাল চত্বরের বরফ সাফ করতে উদ্যত হয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। এছাড়া বিদ্যুৎ জল এবং অন্যান্য জরুরি পরিষেবা গুলি সচল রাখার প্রয়াসও চালানো হচ্ছে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close