মহানগর

আজই কেওড়াতলা শ্মশানে শেষকৃত্য সৌমিত্রর, ভিড় না করে প্রার্থনার অনুরোধ মেয়ের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: বাংলা চলচ্চিত্র জগতকে কার্যত অভিভাবক হীন করে দিয়ে কালীপুজোর পরের দিনই চিরবিদায় নিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। প্রবাদপ্রতিম এই অভিনেতার মৃত্যু সংবাদে শোকের ছায়া নেমেছে টলিউডে। স্বস্তিকা মুখার্জী, মিমি চক্রবর্তী, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, জিৎ গাঙ্গুলী, অভিনেতা জিৎ থেকে শুরু করে শোক প্রকাশ করেছেন একাধিক তারকা। এরই মাঝে পিতার মৃত্যু সংবাদ দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেন কন্যা পৌলমী বোস।

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের প্রয়াণের খবর শুনেই হাসপাতালে ছুটে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এদিন ১২টা বেজে ৪৫ মিনিটে মুখ্যমন্ত্রী ঢোকেন বেলভিউতে৷ সঙ্গে ছিলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস৷ পৌলমী বলেন, ‘‘ঠিক হয়েছে এখান থেকে দেহ নিয়ে গল্ফ গ্রিনের বাড়িতে যাওয়া হবে৷ সেখান থেকে টেকনিশান স্টুডিও৷ সাড়ে তিনটের পর দেহ নিয়ে আসা হবে রবীন্দ্র সদনে৷ এখানে ঘণ্টাখানেক থাকবে মরদেহ৷ তারপর সন্ধ্যা নাগাদ কেওড়াতলা শ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে৷’’

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে স্বভাবতই ভেঙে পড়েছেন তাঁর কন্যা পৌলমী বোস। নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে এদিন তিনি পিতার মৃত্যু সংবাদ জানিয়ে পোস্ট করেছেন। করোনা আবহে বর্ষীয়ান অভিনেতার মৃত্যুতে বাড়ির সামনে ভিড় না করার অনুরোধ জানিয়েছেন সৌমিত্র কন্যা। বাড়ি থেকেই প্রার্থনা এবং সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের আত্মার শান্তি কামনা করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি ভক্ত ও শুভানুধ্যায়ীদের।

ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, “আমি সকলকে অনুরোধ করছি, দয়া করে এখন আমাদের বাড়িতে আসবেন না। আমার মা এবং ছেলেদের শরীর ভালো নেই। দয়া করে মহামারী পরিস্থিতির কথা মাথায় রাখুন এবং বাড়ি থেকেই প্রার্থনা করুন। আপনারা যদি সত্যিই উদ্বিগ্ন হন, তাহলে আমার বাবার ইচ্ছেকে সম্মান জানান।”

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=10207997238004054&id=1691294038&sfnsn=wiwspwa

এখানেই শেষ নয়, এই মুহূর্তে কারোর সঙ্গে যোগাযোগ করতে ইচ্ছুক নন বলে জানিয়েছেন পৌলমী বোস। বাবার মৃত্যু শোক থেকে নিজেকে সামলানোর জন্য কিছু সময় চেয়ে নিয়েছেন তিনি। এছাড়াও, জানা গেছে বিকেল সাড়ে তিনটে থেকে সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত সৌমিত্র বাবুর মরদেহ শায়িত থাকবে নন্দন চত্বরে। অনুরাগীরা তাঁকে সেখানেই শেষ শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন বলে জানিয়েছেন সৌমিত্র কন্যা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close