রাজ্য

দুর্গাপুজো, কালীপুজোর পর এবার হাইকোর্টের কোপ ছটেও, শোভাযাত্রায় জারি হল নিষেধাজ্ঞা

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: করোনা আবহেই রাজ্য জুড়ে চলছে উৎসবের মরশুম।ভাইরাসের চোখ রাঙানি মানুষের উৎসবের আমেজে বাধ সাধতে পারে নি। একাধিক বিধি নিষেধ মাথায় নিয়েই একের পর এক উৎসবে রাস্তায় নেমেছেন পশ্চিমবঙ্গের মানুষ।তবে বাধ সেধেছে আদালত। দু্র্গাপুজো , কালীপুজোর পর ফের একবার হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ল রাজ্যের আরো এক উৎসব।

এবার রাজ্যে ছট পুজোতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল উচ্চ আদালতের তরফ থেকে।জানা গেছে, ছট পুজো উপলক্ষ্যে রাস্তায় বহু মানুষ একত্রে যে শোভাযাত্রায় সামিল হন, করোনা আবহে তা এবছর করা যাবে না একেবারেই। মঙ্গলবারই ছট পুজো নিয়ে এই ঐতিহাসিক রায় দেওয়া হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে। শুধু তাই নয়, প্রতিটি পরিবারের তরফ থেকে পুজো দেওয়ার জন্য কেবলমাত্র দু-জন করে জলাশয়ে যেতে পারবেন, এমনটাই নির্দেশ উচ্চ আদালতের।

এছাড়াও, করোনা আবহে এবছর কলকাতার দুটি বৃহত্তম লেকে ছট পুজো উপলক্ষ্যে পূণ্যার্থীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আদালতের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, রবীন্দ্র সরোবর লেক এক সুভাষ সরোবর লেকের দরজা এবছর ছট পুজোয় বন্ধ থাকবে। কলকাতা হাইকোর্টের পরিবেশ আদালত বা ন্যাশানাল গ্রিণ ট্রাইব্যুনালও এর আগে রবীন্দ্র সরোবর লেকে ছট পুজো নিষিদ্ধ করেছিল।

এদিন কলকাতা হাইকোর্টের অ্যাডভোকেট সব্যসাচী চ্যাটার্জী জানান, “আদালত ছট পুজোর শোভাযাত্রা নিষিদ্ধ করেছে। পরিবার প্রতি দুজন করে ব্যক্তি জলাশয়ে পুজো দেওয়ার জন্য ঢুকতে পারবেন। যাঁরা গাড়িতে আসবেন তাঁদের সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে, তাঁদের সবাইকেই গাড়ি থেকে নামার অনুমতি দেওয়া হবে না।” আদালতের রায় অনুযায়ী, ছট পুজোয় পরিবারের বাকি সদস্যদের বাড়ি থেকেই উপভোগ করতে হবে। এছাড়া করোনা বিধি মানা এবং মাস্ক ও স্যানিটািজারের ব্যবহার যথারীতি বাধ্যতামূলক করা হয়েছে ছট পুজোতে।

উল্লেখ্য, এর আগে রাজ্যের সবথেকে বড়ো উৎসব দুর্গা পুজোতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। করোনা আবহে দুর্গাপুজোর মন্ডপে দর্শনার্থীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। এছাড়া আগামী দীপাবলিতেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে আতশবাজি। সেই ধারা মেনেই ছট পুজোতেও জারি হল কলকাতা হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close