ঢ্যাং-কুরাকুরমহানগর

স্টান্টবাজি নয় মানুষের কথা ভেবেই মন্ডপে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা কলকাতার ক্লাবগুলোর

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা মহামারীতে বতর্মান শহরের চিত্র দ্বিমুখী। কলকাতা জুড়ে পুজোর আলো। প্যান্ডেলে ঠাকুর ইতিমধ্যেই এসে গেছে। শহরের অন্যতম বিশিষ্ট পুজো সন্তোষ মিত্র স্ক্যোয়ার এবছর করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে তাদের বার্তা দিয়েছেন “হেঁটে নয় নেটে দেখুন” অর্থাৎ এবছর ভার্চুয়ালি পুজো দেখার আনন্দ উপভোগ করার কথা বলেন।

সন্তোষ মিত্র স্ক্যোয়ারের এই ঘোষণার পরই কিছু কিছু বিশিষ্ট পুজো উদ্যোক্তারা মন্তব্য করেন যে শেষ মুহূর্তের প্রচার পেতেই এমন স্টান্টবাজি করা হচ্ছে। এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে সন্তোষ মিত্র স্ক্যোয়ারের উদ্যোক্তা সজল ঘোষ বলেন “প্রথম দিন থেকেই তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ভিড় হলেই দর্শনার্থী প্রবেশ বন্ধ করা হবে কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে আর সিদ্ধান্ত নেওয়ার অপেক্ষা করা গেলনা, দর্শনার্থী প্রবেশ বন্ধ করা হল।”

এদিন সজলবাবু আরো বলেন “যারা বলেছেন যে স্টান্টবাজি করছি তারা আমাদের নিজেরা ফলো করলে ছোট হয়ে যাবেন তাই এসব বলেছেন, আর তাদের কথার কতটা ভিত্তি আছে সেটা পশ্চিমবঙ্গবাসী জানেন। আর যারা এই নিয়ে তদন্ত করবেন বলছেন তাদের বলি অনেক তদন্ত পড়ে আছে সাথে এইটাও যোগ দিন, করুন তদন্ত। এসব কথা যারা বলেন তাদের অনেকের থেকে আমাদের প্যান্ডেল অনেক খোলামেলা হয়েছে যথেষ্ট স্বাহ্যবিধি মেনেই হয়েছে।”

এপ্রসঙ্গে কথা বলতে গেলে ম্যাডক্স স্কোয়ার পুজো কমিটির সেক্রেটারি অমলেন্দু বাবু ও সন্তোষ মিত্র স্ক্যোয়ারের সজলবাবু উভয়ই জানান যে যথেষ্ট আইনবিধি মেনেই তাদের প্যান্ডেল করা হয়েছে এবং পুজোর আয়োজনও সম্পন্ন হচ্ছে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close