মহানগর

পল্লবী-বিদিশার পরে আরো এক! ‘শান্তি চাই, গুড বাই’ লিখে আত্মহত্যার চেষ্টা উঠতি মডেলের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ শহরে ফের উঠতি মডেলের আত্মহত্যার চেষ্টা। ঘটনাটি ঘটেছে, দক্ষিণ কলকাতার মুকুন্দপুরে৷ যদিও এই যাত্রায় বেঁচে যান ওই মডেল। তবে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে মুকুন্দপুরেরই এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বছর ২৭ এর এই তরুণীর নাম দেবলীনা দে৷ বাড়ি বর্ধমান জেলার কালনায়৷ সুত্রের খবর, বিগত কয়েক বছর ধরে মুকুন্দপুরের একটি আবাসন ভাড়া নিয়ে থাকছিলেন তিনি। কিছু কিছু ধারাবাহিকে কাজ করেছিলেন ওই উঠতি অভিনেত্রী। তবে সেই অর্থে উপার্জন খুব একটা হচ্ছিল না। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন এ নিয়ে মাঝেমধ্যেই মনোমালিন্য চলত তাদের সঙ্গে।

পরিবারের সদস্যদের দাবি, মাসে দশ হাজার টাকা বাড়ি ভাড়া, সহ একাধিক খরচ তারাই যোগাতেন। বিগত ২২ শে জুন দেবলীনার আঠাশতম জন্মদিনে ঘটনা চরমে ওঠে। কালনায় নিজের পৈতৃক বাড়িতে সন্ধে বেলা পার্টির পর বাবার কাছে নতুন একটি ব্যবসা শুরু করার জন্য লক্ষাধিক টাকা চাইতেই বেঁকে বসেন বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা। এদের মধ্যে সব থেকে বেশী প্রতিবাদ করে অভিনেত্রীর ভাই। ফলে ভাইয়ের সঙ্গে বচসা হয়৷ এমনকি হাতাহাতিতেও জড়িয়ে পড়েন দেবলীনা।

ছবি: দেবলীনা দে’র ফেসবুক প্রোফাইল থেকে নেওয়া

এরপরেই সামাজিক মাধ্যম থেকে ভাইকে ব্লক করেন তিনি। পরের দিন বিকেলে একটি গাড়ি ভাড়া করে দেবলীনাকে কোলকাতায় পাঠান হয়। মেয়ে মুডি এবং শর্ট টেম্পার, তার ওপর আগের দিন বাড়িতে এতো অশান্তি হয়েছে। তাই মা সঙ্গে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু মাকে আসতে বারণ করে মেয়ে।

গত শুক্রবার, নরেন্দ্রপুরের একটি বাগান বাড়িতে একটি আগমনী মিউজিক ভিডিয়োর শুট ছিল। সেখানে সকালে শ্যুটিং করেন তিনি। তারপর কাউকে কিছু না জানিয়ে হঠাৎ নিরুদ্দেশ হয়ে যান দেবলীনা দে। বন্ধ করে দেন নিজের মোবাইল। ফেসবুকে পরিবারের বিরুদ্ধে একটি পোস্ট করে রাতে বেশ কয়েকটি ঘুমের ওষুধ খান। ভোর রাতে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close