fff
সিনেমা

Laal Singh Chaddha: ‘হিন্দু বিরোধী’, ‘দেশ বিরোধী’ তকমা! বয়কটের ডাক আমিরের নতুন ছবি ঘিরে

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ বলিউডে নতুন মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি আর বিতর্ক এখন যেন সমার্থক। এবার বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে আমির খান ও করিনা কাপুর অভিনীত ছবি লাল সিং চাড্ডা(Laal Singh Chaddha)। ছবিটি ঘিরে বয়কটের ডাক উঠলো ট্যুইটারে। এই বছরের অগাস্ট মাসে মুক্তি পাওয়ার কথা ছবিটির। কিন্তু তার আগেই ট্যুইটার জুড়ে ছেয়ে গেছে ‘লাল সিং চাড্ডা'(Laal singh chaddha) ছবিটিকে বয়কটের দাবি। এমনিতেই সময়টা ভালো যাচ্ছেনা বলিউডের। ‘ভুলভুলাইয়া টু’ ছাড়া বাকি আর কোনো ছবিই তেমন ব্যবসার মুখ দেখেনি। দক্ষিণী ছবির দাপটে অনেকটাই কোনঠাসা হয়ে পড়েছে মুম্বাইয়ের সিনেমা শিল্প। এই সময়ে, অনেকেই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন আমির অভিনীত লাল সিং চাড্ডা(Laal Singh Chaddha) ছবিটি রিলিজের জন্য। দীর্ঘ বিরতির পরে ঠিক কীভাবে ফিরে আসবেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট, সেই অপেক্ষায় তাঁর ভক্তরাও। অনেকেরই আশা ছিলো আবার একটা দারুণ ছবি দর্শকদের উপহার দিতে চলেছেন আমীর খান। টম হ্যাংকস অভিনীত হলিউডের বিখ্যাত সিনেমা ‘ফরেস্ট গাম্প’ এর অনুসরণেই এই ছবি তৈরি হয়েছে বলে জল্পনা। বলিউডে চলা সাম্প্রতিক খরা কাটাতেও হয়তো সহায়ক হবে লাল সিং চাড্ডা (laal singh chadda), এমনটাই আশা সমালোচকদের। কিন্তু অস্বস্তির খবর, এর মধ্যেই ট্যুইটারে ট্রেন্ডিং হতে শুরু করেছে, ‘লাল সিং চাড্ডা বয়কট'(Laal singh chaddha boycott) এর দাবি।

কেন বয়কটের ডাক?

লাল সিং চাড্ডা(laal singh chaddha) ছবিটি রিলিজের আগেই বয়কটের ডাক দিতে শুরু নেটিজেনদের একাংশ। এতেই ভ্রূকুটি অনেকের কপালে। হলিউডের বিখ্যাত ছবি ফরেস্ট গাম্প এর সঙ্গেও তুলনা চলছে লাল সিং চাড্ডার(Laal singh chaddha vs forrest gump)। আমিরকে হিন্দু বিরোধী(Anti Hindu) তকমা দিয়ে বয়কটের ডাক দেওয়া হচ্ছে ছবিটিকে। বছর সাতেক আগে আমির খানের করা একটি মন্তব্যকে হাতিয়ার করে তাঁকে হিন্দু বিরোধী(Anti Hindu), দেশ বিরোধী বলে প্রচার চলছে ট্যুইটারে। সামাজিক মাধ্যম ট্যুইটারে এখন ট্রেন্ডিং ‘লাল সিং চাড্ডা বয়কট'(laal singh chaddha boycott)।

কী বলেছিলেন আমির?

২০১৫ সালের এক অনুষ্ঠানে আমিরের করা একটি মন্তব্য নিয়েই বিতর্কের সূত্রপাত। তিনি বলেন, তাঁর তৎকালীন স্ত্রী কিরণ রাও এর সঙ্গে বাড়িতে কথা বলার সময় কিরণ আশঙ্কা ব্যক্ত করেন, দেশে ‘ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা’র জন্য তারা দেশ ছাড়বেন কিনা! সকালে সংবাদপত্র খুলতেও নাকি ‘ভয়’ পান কিরণ! আমীর দেশের পরিস্থিতি নিয়ে ‘উদ্বেগ’ প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে সেইসময়েই শুরু হয় বিতর্ক। একপক্ষ আমীরকে সমর্থন করতে থাকেন, আরেক পক্ষ আমীর খানকে দেশ বিরোধী বলতে শুরু করেন। বিতর্কের মধ্যে সেই সময়েই আমীর বলেন, তিনি দেশকে অসহিষ্ণু বলেননি। তাঁর কথার ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে। কিছু মানুষ আছেন যারা সমাজে অসুস্থতা তৈরি করে। সব ধর্মেই এরকম মানুষ আছেন। নিজের বক্তব্যের সমর্থনে সেই সময়েই এই সাফাই দেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট।

কিন্তু আমীরের তৎকালীন মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই লাল সিং চাড্ডা(laal singh chaddha) ছবিটি বয়কটের ডাক অব্যাহত রয়েছে। ট্যুইটারে ট্রেন্ডিংয়ে প্রথমের দিকেই জায়গা করে নিয়েছে ‘লাল সিং চাড্ডা বয়কট'(laal singh chaddha boycott) শিরোনামটি। বিজেপি এমএলএ পরাগ শাহ তার ট্যুইটার লিখেছেন, “আমির খান বলেছেন ভারত অসহিষ্ণু এবং তিনি দেশ ছাড়তে চান। তাহলে তাঁকে ভারত ছেড়ে যেতে দেওয়া হোক, কেন তাঁর সিনেমা এখানে মুক্তি পাচ্ছে? জয় হিন্দ। লাল সিং চাড্ডা বয়কট” (laal singh chadda boycott)। এরকম বহু পোস্টে ছেয়ে গেছে ট্যুইটার। তাঁকে হিন্দু বিরোধী(anti hindu), তুর্কিপ্রেমী বলেও কটাক্ষ করছেন অনেকে। দেশদ্রোহীদের আস্তানা’ হয়েছে বলিউড, এই অভিযোগে অনেকে বলিউডকেই বয়কটের ডাক দিয়েছেন। অনেকের মতে দেশ বিরোধীতাই এখন নতুন বলিউডের ট্রেন্ড(Bollywood trends)।

বিতর্ককে সঙ্গী করাই বলিউডের ট্রেন্ড(Bollywood trend)

এর আগেও দীপিকা পাদুকন অভিনীত ‘পদ্মাবত’ ছবিটি বয়কটের ডাক উঠেছিলো। ছবিটি রিলিজের পরে দেশজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভও দেখানো হয়, হিন্দু ধর্ম ধর্মকে অপমান করা হয়েছে এই অভিযোগে। এছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে এরকম অনেক ছবিকেই বয়কটের ডাকে ভরে উঠেছে সামাজিক মাধ্যমের দেওয়াল। বলিউডে এখন নতুন ছবি মানেই, নতুন বিতর্ক। বয়কটের ডাক সমার্থক হয়ে গেছে বলিউডের সঙ্গে। সেই কোপ থেকে বাদ গেলোনা লাল সিং চাড্ডা(laal singh chaddha) ছবিটিও।

লাল সিং চাড্ডা বনাম ফরেস্ট গাম্প (Laal singh chadda vs forrest gump) নিয়ে এর আগেই বিতর্ক শুরু হয়েছিলো। টম হ্যাংকসের বিখ্যাত ছবি ফরেস্ট গাম্পেরই ভারতীয় অনুকরণ আমিরের লাল সিং চাড্ডা(laal singh chadda), এটাই ছিলো অনেকের অভিযোগ। এর মধ্যেই পুরানো মন্তব্যকে কেন্দ্র করে আমিরকে হিন্দু বিরোধী(Anti hindu) তকমা দিয়ে লাল সিং চাড্ডা বয়কটের(laal singh chadda boycott) এর ডাক এখন সমাজিক মাধ্যমের দেওয়ালে দেওয়ালে উঁকি দিচ্ছে।

বলিউডের চলমান খরা কাটাতে এখনও অনেকেরই ভরসা তিন খানের ওপরেই। সেখানে মিস্টার পারফেকশনিস্টের নতুন ছবি মানেই উৎসাহ তুঙ্গে। তারই মধ্যে এই বয়কট বিতর্ক ছবিটিকে বাণিজ্যিকভাবে কতোটা প্রভাবিত করে, এখন সেটাই দেখার। ছবিটির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করছেন দক্ষিণী অভিনেতা নাগা চৈতন্য এবং মোনা সিং। আপাতত ১১ অগাস্ট ছবিটি মুক্তির অপেক্ষায় সিনেপ্রেমীরা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please Disable your ADBlocker!