বিনোদন

ডিসলাইকের সংখ্যা গোপন কেন? ‘লক্ষ্মীবম্ব’ ট্রেলার ঘিরে ট্রোলের বন্যা নেট দুনিয়ায়

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: আগামী দিওয়ালিতে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে চলেছে অক্ষয় কুমার অভিনীত নতুন ছবি ‘লক্ষ্মীবম্ব’।গত শুক্রবারই ইউটিউবে এই ছবির ট্রেলার মুক্তি পায়। কিন্তু ট্রেলার মুক্তির পর বলিউডের এই নতুন ছবিকে ঘিরে তৈরি হয়েছে নতুন বিতর্ক। ইউটিউবে এই ট্রেলারের লাইক এবং ডিসলাইকের সংখ্যা গোপন করে রাখা হয়েছে। যা বিশেষ ভালো চোখে দেখেন নি নেটিজেনরা।

শুক্রবার ট্রেলার মুক্তির পর বলিউডের ভূয়সী প্রশংসা পেয়েছিল ‘লক্ষ্মীবম্ব’। রাঘব লরেন্স পরিচালিত এই ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে অভিনয় করেছেন ‘কবীর সিং’ খ্যাত কিয়ারা আদবাণী।জানা যাচ্ছে, ‘মুনি ২: কাঞ্চনা’ নামের এক তামিল ছবির হিন্দি ভাষায় পুনর্নির্মাণ করা হয়েছে এই ছবিতে। পরিচালক রাঘব লরেন্সের তৈরি এটাই প্রথম হিন্দি ছবি। শুধু তাই নয়, জানা গেছে আসন্ন এই ছবিতে অক্ষয় কুমার অভিনয় করেছেন একজন রূপান্তরকামীর ভূমিকায়।

কিন্তু মজার বিষয় হল, কতজন মানুষ এই ট্রেলার পছন্দ করেছেন এবং কতজন মানুষ অপছন্দ করেছেন তা এক্ষেত্রে বোঝার উপায় নেই। ট্রেলারের লাইক এবং ডিসলাইকের সংখ্যা গোপন রেখেছেন কর্তৃপক্ষ। বলা বাহুল্য, অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে দর্শকদের মধ্যে বলিউড সম্পর্কে যে নেতিবাচক মানসিকতা তৈরি হয়েছে তার প্রভাবেই এই সিদ্ধান্ত। অন্তত তেমনটাই মনে করছেন নেটিজেনদের একাংশ।

কিছুদিন আগে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু, বলিউডের সঙ্গে মাদকযোগ নিয়ে অক্ষয় নিজের মতামত জানিয়ে ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছিলেন। কিছু নেটিজেনদের দাবি, অক্ষয় মূলত নিজের আপকামিং ছবির প্রচারের জন্য এই ভিডিওটি পোস্ট করেছিলেন। শুধু তাই নয়, আসন্ন এই ছবি সম্পূর্ণ বয়কটেরও ডাক দিয়েছেন তাঁরা। একজন বয়কট ‘লক্ষ্মী বম্ব’ হ্যাশ ট্যাগে লিখেছেন, ”অবশ্যই আমাদের ‘লক্ষ্মীবম্ব’ বয়কট করা উচিত।” এক নেটিজেন ‘লক্ষ্মী বম্ব’-এর পোস্টার পোস্ট করেছেন, বয়কট ‘লক্ষ্মী বম্ব’ হ্যাশ ট্যাগে লিখেছেন, ‘আমি অক্ষয়ের অন্যতম বড় ভক্ত ছিলাম। কিন্তু আর নয়।’ একজন আবার আরো একধাপ এগিয়ে গিয়ে বয়কট ‘লক্ষ্মী বম্ব’ হ্যাশ ট্যাগে লিখেছেন, আমি মনে করি যাঁরা SSR-সম্পর্কে একটা কথাও বলেননি, তাঁদের মধ্যে আপনি সবথেকে বেশি বুদ্ধিমান। ঠিক ছবির প্রমোশনের সময় আপনি SSR সম্পর্কে মুখ খুললেন, এতেই বোঝা যায় আপনি ভণ্ড।”

সুতরাং ইউটিউবে ট্রেলার মুক্তির পর কেন তার ডিসলাইক অথবা লাইকের সংখ্যা গোপন করা হয়েছে তা সহজেই অনুমেয়। সুশান্ত মৃত্যুর পর বলিউডের স্বজনপোষন বিতর্কের জেরে এর আগেই একাধিক নতুন ছবির ট্রেলারকে মুখ থুবড়ে ফেলেছেন দর্শকরা। তাই এবার আর কোনো ঝুঁকি নেন নি ট্রেলার নির্মাতারা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close