দেশ

ধর্ষকদের সমর্থনে সভা হাথরাসের স্থানীয় বিজেপি নেতার, উপস্থিত অভিযুক্তের পরিবাররাও

মহানগরবার্তা ওয়েব ডেস্ক:হাথরাস কান্ডে ফিরে এল কাঠুয়া,উন্নাওয়ের স্মৃতি। গণধর্ষণকারীদের সমর্থন করে তাঁদের মুক্তির দাবিতে ফের একজোট হলেন কিছু মানুষ। অভিযোগের আঙুল সেই বিজেপির দিকেই। হাথরাস কান্ডের চার অভিযুক্তদের সমর্থনে বড় সভার আয়োজন করলেন স্থানীয় বিজেপি নেতা রাজবীর সিং পেহেলবান।এক সময় তিনি বিজেপির টিকিটে বিধায়কও হয়েছেন বলে জানা গেছে। তাঁর বাড়িতেই অভিযুক্তদের প্রতি ন্যায় বিচারের দাবিতে এক সভার আয়োজন করা হয়েছিল। এমনটাই দাবি করেছে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

 

হাথরাসের ঘটনায় অভিযুক্ত চার ব্যক্তিকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই চার জনই তথাকথিত “উচ্চ বর্ণের” মানুষ। আর তারাই গত ১৪ সেপ্টেম্বর এক দলিত তরুণীকে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ। উক্ত চারজনের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে যখন সারা দেশ তোলপাড়, তখনই তাঁদের সমর্থনে এই সভার আয়োজন করেন উচ্চ বর্ণের কিছু ব্যক্তি। রাজবীর সিং পেহেলবান নামের স্থানীয় ওই বিজেপি নেতার দাবি, উচ্চবর্ণের এই চার যুবককে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো হচ্ছে। উত্তরপ্রদেশ সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ওই বিজেপি নেতা বলছেন, ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি এই সভার আয়োজন করেছেন। যেখানে হাজির ছিল সমাজের তথাকথিত উচ্চবর্ণের বহু মানুষ। এমনকী গ্রেপ্তার হওয়া চার অভিযুক্তের পরিবারও ওই বৈঠকে হাজির ছিল।

 

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই সভার উপস্থিত সদস্যরা দাবি করেছেন, তাঁরা পুলিশকে জানিয়েই এই বৈঠক করেছেন। উচ্চবর্ণের চার অভিযুক্তকে ফাঁসানো হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে হওয়া অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই। সরকারের উপর চাপ সৃষ্টির চেষ্টা হচ্ছে। এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের প্রয়োজন।

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, হাথরাসের পুলিশ প্রশাসন শনিবার পর্যন্ত করোনার অজুহাতে ওই গ্রামে সংবাদমাধ্যমকে পর্যন্ত ঢুকতে দিচ্ছিল না। আজ এত বড় সভার অনুমতি দেওয়া হল কেন? তাও আবার অভিযুক্তদের সমর্থনে? ওই এলাকার জয়েন্ট ম্যাজিস্ট্রেট প্রেমপ্রকাশ মীনা অবশ্য দাবি করেছেন, এই বৈঠক সম্পর্কে কিছুই জানেন না তিনি।বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close