দেশ

মহামারিতেও সম্পত্তি বাড়লো কয়েকগুণ! ৬ মাসে ভারতে নতুন কোটিপতি ১৫ জন

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: মহামারীর মন্দার বাজারেও কারও লাভের অঙ্ক উর্ধ্বমুখী। মুকেশ আম্বানির মতো আরও অনেক বিলিওনার মানুষের গ্ৰাফ ক্রমশই উর্ধ্বমুখী। আর সাধারণ দরিদ্রদের জীবনে অভাব আরো প্রকট। দীর্ঘ ৪০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম ভারতে জিডিপি সর্বনিম্ন মাত্রায় নেমে দাঁড়িয়েছে ২৩.৯ শতাংশে, কিন্তু এই করোনার সঙ্কটের রাস্তায় দাঁড়িয়েও গত ছয় মাসে দেশে নতুন করে ১৫ জন শত কোটিপতি তৈরি হয়েছে।

‘ফোর্বস-এর ‘ রিয়েল টাইম বিলিওনিয়ার’ তালিকায় আপাতাত মোট ১১৭ জন ভারতীয়ের নাম রয়েছে। যেখানে মার্চের রিপোর্ট অনুযায়ী সংখ্যাটা ছিল ১০২ জন, অর্থাৎ আরও ১৫ জনের নাম নথিভুক্ত হয়েছে। বিশ্বে শত কোটিপতিদের তলিকায় ভারতের রিলাইন্স কম্পানীর কর্ণধার মুকেশ আম্বানীর নাম এয়েছে ৬ নম্বরে। এতো গেল গোটা বিশ্বে, কিন্তু ভারত ও গোটা এশিয়া জুড়ে তিনি তার স্থায়ী স্থান কাউকে ছেড়ে দেন নি বরাবরই তিনিই সর্ব শীর্ষে। তার মোট সম্পত্তির পরিমান ৮,৮২০ কোটি। এবং তার পরের স্থান অধিকার করেছে এইচসিএল টেকনোলজির প্রতিষ্ঠাতা শিব নাদার । তারও সম্পত্তির পরিমান খুব একটা কম নয় ২,০৬০ কোটি টাকা। এর পর পর রয়েছেন আদানি গ্রুপের গৌতম আদানি, কোটাক মাহিন্দ্রা গ্রুপের উদয় কোটাক, ডিমাটের কর্ণধার রাধাকৃষ্ণ দামানি, সিরাম ইনস্টিটিউটের কর্ণধার সাইপ্রাস পুণাওয়ালদের মতো নামী ব্যবসায়ীরা।

কিন্তু অর্থনীতিবিদদের ভাবছেন মেরুর অন্যদিক।এত হারে ভারতে এক শ্রেনীর মানুষের সম্পত্তি বৃদ্ধি অন্যদিকে আবার লকডাউনের জেরে জীবিকা হারিয়েছে সর্বপোরি ৪১ লক্ষ মানুষ । ১১৭ জন ভারতীয়ের মোট সম্পত্তির পরিমান ৩০ হাজার কোটি ডলার যার ফলে ধনী – গরিবের মধ্যে বিপুল পরিমাণে আর্থিক পার্থক্য বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা লক্ষন করছেন তারা।

বিশেষজ্ঞরা মতে, লকডাউনে ব্যাবসায় সবচেয়ে বেশী ক্ষতগ্রস্থ হয়েছে এমএসএমই সেক্টর অর্থাৎ ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প। অর্থনিতিবিদ অভিরূপ সরকারের মতে, “ বৃহৎ শিল্পের ক্ষেত্রে কার্যত তেমন ক্ষতি হয় নি। বরং বলা যায় ধনীরা আরও ধনী হয়েছে। গরিবরা আরও গরিব। অর্থনিতির বণ্টন বৈষম্য আরও বেড়েছে । ”

অন্যদিকে উচ্চ বিত্তশালীদের উপর কর চাপানোর প্রসঙ্গে ওপর অর্থনীতিবিদ দীপঙ্কর দাশগুপ্ত একটু অন্য অভিমত রেখে বলেছেন, “ আমরা অর্থনিতিবিদরা বিভিন্ন সময়ে সরকারকে একই পরামর্শ দিয়েছি এই সকল বিষয়ে । কিন্তু সরকার তা মানতে রাজি নয়। সরকার কি করবে, সেটা আমি বলতে পারছি না”।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close