রাজ্যরাজনীতি

‘এতদিন সরকার উঠোনে ছিল, এখন দুয়ারে এসেছে’, মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ মহুয়া মৈত্র

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: একুশের বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, রাজনৈতিক দল গুলির মধ্যে ততই প্রকট হচ্ছে ক্ষমতা দখলের প্রচেষ্টা। ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূল কংগ্রেসের তরফ থেকে ভোটের আগে ঘোষণা করা হচ্ছে একগুচ্ছ প্রকল্প। সেই ধারাতেই শাসকদলের নবতম সংযোজন ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প।

কিছুদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, নতুন প্রকল্প অনুযায়ী ডিসেম্বর মাস থেকে রাজ্যের মানুষের দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে দেওয়া হবে সরকারি পরিষেবা। রাজ্য সরকারের সেই ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প নিয়ে এবার মুখ খুললেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মহুয়া মৈত্র। তাঁর কথায়, “এতদিন সরকার মানুষের উঠোনে ছিল, এখন দুয়ারে চলে এসেছে।”

কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র এদিন সংবাদমাধ্যমের কাছে কথা বলেন আরেক সরকারি প্রকল্প নিয়েও। সম্প্রতি সূচনা করা হয়েছে রাজ্য সরকারের ‘স্বাস্থ্য সাথী’ প্রকল্পের কাজ। আগে থেকেই এই প্রকল্প চালু থাকলেও নতুন ঘোষণা অনুযায়ী এবার রাজ্যের প্রতিটি মানুষ এই প্রকল্পের সুবিধার আওতায় এসেছেন। মহুয়া মৈত্র এদিন বলেন, “কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেছিলেন। কিন্তু মহারাষ্ট্র, অন্ধপ্রদেশের মতো অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে থাকা রাজ্যগুলির থেকে বাংলা ভালো করেছে। সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প চালু করেছে সরকার।”

বস্তুত, আসন্ন নির্বাচনের আগে বাংলার মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া দেখা গেছে সরকার ঘোষিত নতুন প্রকল্পে। মঙ্গলবার থেকে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে চলছে ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি। সকাল ১০ টা থেকেই সরকারি ক্যাম্প অফিসের সামনে মানুষের লম্বা লাইন চোখে পড়ছে। জেলার সর্বত্র কড়া নজর রাখছে প্রশাসনও। জনপ্রিয়তায় স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পও পিছিয়ে নেই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বুধবার ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি নিয়ে সরকারি আধিকারিকদের মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ, ‘দুয়ারে সরকারের’ ক্যাম্পে এসে কোনও মানুষ যেন খালি হাতে ফিরে না যান, হয়রানির শিকার না হয়। সকলকেই প্রয়োজনমতো পরিষেবা দিতে হবে।” এই পরিপ্রেক্ষিতে মহুয়া মৈত্রের বক্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close